• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
জাল সার্টিফিকেট চক্র: জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যানকে গরিবদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সংখ্যা কমছে বাড়ছে গরমজনিত অসুস্থতা, হাসপাতালে রোগীদের চাপ ড্রিমলাইনারের কারিগরি বিষয়ে বোয়িংয়ের সঙ্গে কথা বলতে মন্ত্রীর নির্দেশ গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবার জন্য গ্রামে গ্রামে ঘুরছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ৩য় ধাপের উপজেলা ভোটেও আপিল কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসক আগামী বাজেটে তামাকপণ্যের দাম বাড়ানোর দাবি জাতিসংঘে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের অগ্রগতি তুলে ধরল বাংলাদেশ দুর্নীতির অভিযোগের বিরুদ্ধে সাবেক আইজিপি বেনজীরের পাল্টা চ্যালেঞ্জ হজযাত্রীদের স্বস্তি দিতে আমরা কাজ করছি: ধর্মমন্ত্রী

একজন শিক্ষক কীভাবে এমন নির্লজ্জ মিথ্যাবাদী হতে পারেন, ফখরুলকে হানিফ

Reporter Name / ৫৪ Time View
Update : শনিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, মির্জা ফখরুল নাকি শিক্ষক ছিলেন। একজন শিক্ষক কীভাবে এমন নির্লজ্জ মিথ্যাবাদী হতে পারেন? রিজার্ভ নাকি শেষ, দেশে কিছু নেই। মাথার ওপর বাতি জ¦লছে, অথচ তারা হাতে হারিকেন নিয়ে বলেন, “বিদ্যুৎ চাই”! আপনারা (বিএনপি) বহুকষ্টে ৩০ শতাংশ লোককে বিদ্যুৎ দিয়েছেন। তাও ২০ ঘণ্টা লোডশেডিং থাকতো। আজ শনিবার কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন হানিফ। এর আগে মঞ্চে উঠেই অনুষ্ঠানে স্লোগান দিয়ে যোগ দেওয়া কর্মীদের উদ্দেশে হানিফ বলেন, তোমরা বলছো, “লোটাস কামাল ভয় নাই/ রাজপথ ছাড়ি নাই”। এ স্লোগান আর কখনও দেবে না। আওয়ামী লীগ কি ভয় পাওয়ার দল? কারও ভেংচি দেখে আওয়ামী লীগ ভয় পায় না। মুস্তফা কামাল ভয় পাওয়া লোক না। এ সময় বিএনপির উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, আমরা শতভাগ মানুষকে বিদ্যুৎ দিয়েছি। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বে জ¦ালানি সংকটের কারণে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে, সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। এতে আমাদের দায় নেই। এদিকে, ভাঙা রেকর্ডের মতো সকাল-বিকাল মির্জা ফখরুলরা বলে যাচ্ছেন, দেশে দুর্ভিক্ষ লেগে গেছে, সব শেষ হয়ে গেছে! তারা আমাদের অর্জন চোখে দেখে না। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েসহ অসংখ্য উন্নয়ন হচ্ছে। এটা মির্জা ফখরুলদের পছন্দ হয় না। তারা বলে, “টেক ব্যাক বাংলাদেশ”। তাদের বাবা ছিল রাজাকার। আপনারা বাংলাদেশকে কোথায় নিয়ে যেতে চান? বোমা মেরে মানুষ রেখেছেন। মির্জা ফখরুল, কোথায় ছিল আপনাদের মানবতা? পার্লামেন্টে নিন্দা প্রকাশ করতে দিলেন না। এত সহজে আপনাদের চোখের পানি শেষ হবে না। দুই-একটা সমাবেশ করে আপনারা মনে করছেন, খেলা মনে হয় জমে গেছে। বাংলার মানুষ দুর্নীতিবাজ খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে ক্ষমতায় আনবে না। আপনারা পাকিস্তানকে লালন করেন, আপনারা পাকিস্তানে ফিরে যান। লন্ডনে থেকে অনেক বড় বড় বুলি ছড়ান, বাংলাদেশ কোন পথে যাবে? সে ফায়সালা ১৯৭১-এ হয়ে গেছে। এই সন্ত্রাসীরা আবার বেরিয়ে আসছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলবো, তাদের গ্রেপ্তার করুন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যতদিন জীবিত থাকবেন, ততদিন রাষ্ট্রক্ষমতা আওয়ামী লীগের হাতে থাকবে। সদর দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম সারোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিব। অনুষ্ঠান উদ্বোধন ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ হ ম মুস্তফা কামাল। অনুষ্ঠানে মুস্তফা কামাল বলেন, সারা বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রের চেয়ে আমরা ভালো আছি। আমরা সাময়িক বিপদে আছি। ইনশাল্লাহ, সে বিপদ কেটে যাবে। আমাদের ফরেন রিজার্ভ সাত বিলিয়ন ছিল। এখন রিজার্ভ ৩৬ বিলিয়ন। জাতীয় রাজস্ব ছয় গুণ বৃদ্ধি করেছি। আমরা কখনও পিছু ফিরে যাবো না। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান বাবলু প্রমুখ। সম্মেলনে গোলাম সারোয়ারকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আবদুর রহিমকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন সংসদ সদস্য মুজিবুল হক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category