• মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
অগ্নিকা- প্রতিরোধে পদক্ষেপ পর্যালোচনায় বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন হাইকোর্টের রমজানে পণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার সুযোগ নেই: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ১০ মার্চের মধ্যে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল পাবে ৫০ লাখ পরিবার: খাদ্যমন্ত্রী বীজে অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ডিসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী ধানম-ির টুইন পিক টাওয়ারের ১২ রেস্তোরাঁ সিলগালা বান্দরবানে সাংবাদিকদের ২ দিন ব্যাপী আলোকচিত্র ও ভিডিওগ্রাফি প্রশিক্ষণ মজুদদারির বিরুদ্ধে ডিসিদের কঠোর হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযানে ডিসিদের সহায়তা চাইলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদে অনির্বাচিত কেউ আসতে পারে না : স্পিকার ইসলামি শিক্ষা কেন্দ্রে মাওলানা আব্দুলাহ আনোয়ার আটক

কক্সবাজারে নারী ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার ৩ জন রিমান্ডে

Reporter Name / ৯৪ Time View
Update : সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজারে এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার ৩ জনের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার সকালে এ ৩ জনকে কক্সবাজার সদর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠায় তদন্তকারি সংস্থা ট্যুরিস্ট পুলিশ। এ আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানানো হলেও ২ দিনের রিমান্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত। জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামিরা হলোÑ কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ বাহারছড়া এলাকার আবুল বশরের ছেলে রেজাউল করিম, একই এলাকার সালেহ আহমদের ছেলে মেহেদী হাসান এবং চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের উলুবনিয়া গ্রামের মোক্তার আহমদের ছেলে মামুনুর রশীদ। তারা ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগী ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। কক্সবাজারে ট্যুরিস্ট পুলিশের এসপি মো. জিল্লুর রহমান বলেন, নারী ধর্ষণের মূল হোতা আশিকসহ এ পর্যন্ত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আশিককে ঢাকায় আদালতে পাঠিয়েছে র্যা ব। তাকে কক্সবাজারে পাঠাতে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কক্সবাজার শহরের শীর্ষ সন্ত্রাসী আশিকুল ইসলাম আশিকের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী চক্র এক নারীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। র্যা ব অভিযান চালিয়ে কক্সবাজারের হোটেল জিয়া গেস্ট ইন থেকে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে বলে সাংবাদিকদের জানানো হয়। ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে হোটেলের ম্যানেজার রিয়াজ উদ্দিন ছোটনকে আটক করা হয়েছিল। এ ঘটনায় ২৩ ডিসেম্বর রাতে কক্সবাজার সদর থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ৩ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেন ধর্ষণের শিকার নারীর স্বামী। আসামিরা হলেনÑ আশিকুর রহমান ও তার তিন সহযোগী ই¯্রাফিল হুদা ওরফে জয়া ও মেহেদী হাসান ওরফে বাবু এবং রিয়াজ উদ্দিন ছোটন। মামলাটি তদন্ত করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

 

 

 

ঘোড়া ও হাতপাখার সিল মারা ব্যালট পাওয়া গেলো ঝোপের আড়ালে
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চতুর্থ দফার ইউপি নির্বাচনে ভোট গ্রহণের পর দিন সোনাগাজীর সদর ইউনিয়নের ছাড়াইতকান্দি হোসাইনিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রের পাশে ঝোপের আড়ালে নৌকার প্রতিদ্বেন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের পক্ষে সিল মারা ব্যালট পাওয়া গেছে। এসব ব্যালটের সংখ্যা অন্তত ২০০টি। স্থানীয়রা জানান, ব্যালটগুলোতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সামছুল আরেফিনের ঘোড়া প্রতীক ও ইসলামি আন্দোলনের ফখরুদ্দিনের হাতপাখার প্রতীকের সিল মারা রয়েছে। পাশে একটি সিলমোহরও দেখা গেছে। ব্যালটগুলোর অপর পাতায় ভোটকেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তার স্বাক্ষর রয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ব্যালটগুলো গ্রামবাসী উদ্ধার করলেও নির্বাচন কর্মকর্তা অথবা প্রশাসনের পক্ষে থেকে সেগুলো জব্দ করার কোনো উদ্যেগ নেওয়া হয়নি। স্থানীয় রাহাত ও নুর আলম বলেন, ‘রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালে নৌকা প্রতীকের পক্ষে বহিরাগতরা কেন্দ্র দখল করে সিল মারেন। আমরা গ্রামবাসী প্রতিবাদ করলেও প্রশাসনের সহযোগিতা পায়নি। প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে জাল ভোট দিতে সুযোগ না দেওয়ার অনুরোধ করলেও তিনি আমাদের পাত্তা দেননি। ভোট গণনার পর ফলাফল কেন্দ্রে প্রকাশের অনুরোধ করলেও তিনি আমলে নেয়নি।’ তবে অভিযোগ অস্বীকার করে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম বলেন, ‘কাউকে অনৈতিক সুবিদা দেওয়া হয়নি। ভোট গণনা শেষে সব কিছু রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে বুঝিয়ে দিয়েছি। কীভাবে সিলমারা ব্যালট বাইরে গেলো তা রিটার্নিং কর্মকর্তা বলতে পারবেন।’ এদিকে ভোট কেন্দ্রের ফলাফল পুনরায় গণনার দাবি নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই ওয়ার্ডের সাদারণ সদস্য পদপ্রার্থী এনামুল হক শিফন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী মঞ্জু রানী দেবী। তাদের দাবি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে ফলাফলে বৈধ ও বাতিল ভোটের সংখ্যার গরমিল রয়েছে এবং ফলাফল শিটে ফ্লুইড ব্যবহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে রিটানিং কর্মকর্তা তুর্য সাহা বলেন, ব্যালট কীভাবে বাইরে গেলো, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা বলতে পারবে। ঘটনাটি উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ অবহিত করা হয়েছে।

 

 

 

 

শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীর মায়ের রক্তাক্ত লাশ!
নিজস্ব প্রতিবেদক :
পুরান ঢাকার আরমানিটোলা এলাকায় আহামেদ বাওয়ানী স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কক্ষ থেকে পারভীন বেগম (৪৭) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির অফিস খোলার পর কর্মচারীরা মেঝেতে লাশটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে। মেঝেতে পড়ে থাকা পারভীনের মুখমন্ডল রক্তাক্ত দেখা গেছে। পাশেই ইঁদুর নিধনের বিষ পাওয়া গেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। জানা গেছে, পারভীনের ছোট মেয়ে ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। বড় মেয়ে বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ছেলে কলেজে পড়েন। পুলিশের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার ইলিয়াস হোসেন বলেন, পারভীনের মৃত্যুটি রহস্যজনক। তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি বিষপানে মারা গেছেন, তা নিশ্চিত হতে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। লাশের পাশেই একটি কাগজ পাওয়া গেছে, যাতে পারভীনের নাম-ঠিকানা লেখা রয়েছে। ওই কাগজ অনুযায়ী তার বাসা পুরান ঢাকার সিদ্দিকবাজার এলাকায়। শ্রেণিকক্ষে লাশ পাওয়ার খবরে স্কুলটার সামনে ভিড় করেন অভিভাবকেরা। তারা বলছিলেন, কেউ আত্মহত্যা করতে চাইলে স্কুলের কক্ষে আসার কথা নয়। ওই নারীকে হত্যা করা হতে পারে। স্কুলটির একজন নিরাপত্তাকর্মী আবদুল গাফফার বলছিলেন, রাতে স্কুলের সব গেট বন্ধ থাকে। তাই ওই নারী হয়তো আগের দিন (রোববার) স্কুলে ঢুকে আত্মহত্যা করতে পারেন। তবে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, কক্ষটির দরজা লাগানো হয়নি। নির্মানকাজের সিমেন্টের বস্তার স্তুপ সাজানো সেখানে। লোকজনেরও চলাফেরা রয়েছে সেখানে। এমন পরিস্থিতিতে কেউ সেখানে গিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করলেও দেখার কথা। পারভীন বেগমের ব্যবসায়ী স্বামী আবদুল বাসেত মারা গেছেন কয়েক বছর আগে। তবে ঘটনাস্থলে তার সন্তানেরাসহ অন্য স্বজনেরা এসেছেন। তাৎক্ষণিকভাবে কেউ মুখ খুলতে রাজি হননি। অবশ্য একজন স্বজন জানিয়েছেন, আগামী মাসেই পারভীনের বড় মেয়ের বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করা। কোন পরিস্থিতিতে এমন ঘটনা ঘটল, তারা কিছুই বুঝতে পারছেন না।

 

 

পটুয়াখালীতে ভোটের পর সংঘর্ষ, গুলিতে একজনের মৃত্যু
নিজস্ব প্রতিবেদক :
পটুয়াখালীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট পুনরায় গণনা নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষের সময় গুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুল খালেক (৫২) জেলার রাঙ্গাবালী উপজেলার নয়ারচর গ্রামের হাফেজ মিস্ত্রির ছেলে। রোববার সন্ধ্যায় চরমোন্তাজ ইউনিয়নে নয়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে তিনি মারা যান বলে চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই মো. মিজানুর রহমান জানান। স্থানীয়দের ভাষ্য, ভোট শেষে গণনার পর ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য প্রার্থী মো. আলমগীর মালকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। প্রতিপক্ষ মো. জিয়াউর রহমানের সমর্থকরা ভোট পুনরায় গণনার দাবি জানান। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে কেন্দ্রের মধ্যেই দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা গুলি করেন। সংঘর্ষের সময় আবদুল খালেক গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। তবে পুলিশ বলছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে তার মৃত্যু হয়নি। এসআই মিজান বলেন, ঘটনাস্থলে উপস্থিত আনসার, বিজিবি, পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড গুলি চালান। তবে মিজানের শরীরে যে দুটি গুলির চিহ্ন রয়েছে তা দেখে বোঝা যাচ্ছে আমাদের ফোর্সের গুলি না। অধিকতর তদন্তের জন্য লাশের ময়নাতদন্ত করতে পটুয়াখালী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে বিজয়ী ঘোষিত সদস্য প্রার্থী মো. আলমগীর মাল বলেন, “ভোট গণনা শেষে আমাকে বিজয়ী ঘোষণা করলে আমি চলে আসি। পরে শুনেছি সংঘর্ষ হয়েছে। গুলিতে একজন মারা গেছে। তিনি এর বেশি কিছু বলতে চাননি। কী নিয়ে উত্তেজনা সে সম্পর্কেও তিনি কিছু বলতে চাননি। পরাজিত প্রার্থী মো. জিয়াউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। রোববার দেশের ৮৩৬ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হয়। তাতে জয়-পরাজয়ের দ্বন্দ্বে বিভিন্ন জায়গায় সংঘর্ষ হয়; মারা যান অন্তত তিনজন।

 

সিলেটে ‘জামায়াত প্রার্থীর সমর্থক’ ও পুলিশের সংঘর্ষে একজন নিহত
নিজস্ব প্রতিবেদক :
সিলেটে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত জামায়াত ইসলামীর প্রার্থীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুস সালাম (৪৫) সাইকেল-রিকশার মেকানিক ছিলেন। জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার রামপা গ্রামে তার বাড়ি। রোববার রাতে উপজেলার বৈটিকর বাজারে সংঘর্ষ হলে তিনি মারা যান বলে জানান গোলাপগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশিদ। ওসি স্থানীয়দের বরাতে বলেন, রোববার ফুলবাড়ি ইউনিয়নে ভোট গণনা শেষে রাত ৮টার দিকে ফল ঘোষণা করা হয়। তাতে নৌকার প্রার্থী আবদুল হানিফকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়। কিন্তু ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দুটি কেন্দ্রের ফল প্রত্যাখ্যান করেন জামায়াত ইসলামীর চেয়ারম্যান প্রার্থী এমরান হোসেনের লোকজন। তারা বৈটিকর বাজারে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন। পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে চাইলে তুমুল সংঘর্ষ বাধে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও গুলি নিক্ষেপ করে। ওসি বলেন, সংঘর্ষকালে আবদুস সালাম আহত হন। তার বুক ও পেটে ছররা গুলির চিহ্ন দেখা গেছে। পরে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি বলেন, প্রায় দেড় ঘণ্টার সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত লোক আহত হয়েছেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাবের একাধিক দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষের পরে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয় বলে জানান ওসি। এ বিষয়ে জানার জন্য জামায়াত প্রার্থী এমরান হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে বন্ধ পাওয়া গেছে।

 

নারায়ণগঞ্জে বাসে ট্রেনের ধাক্কা: মৃত্যু বেড়ে ৪
নিজস্ব প্রতিবেদক :
নারায়ণগঞ্জ শহরে বাসে ট্রেনের ধাক্কায় আহতদের মধ্যে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গতকাল সোমবার ভোরে মেজবাহ উদ্দিন (৬৫) নামে এই ব্যক্তি মারা যান বলে হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান। মেজবাহর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ শহরের ১ নম্বর রেলগেইট এলাকায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে একটি বাস উঠে পড়ে। এ সময় ট্রেন এসে ধাক্কা দিলে তিনজন ঘটনাস্থলে নিহত হন। তাছাড়া আহত হন আরও ১০ জন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মোকলেছুর রহমান, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটা মামলা করেছে। তাছাড়া রেল কর্তৃপক্ষ একটা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছেন সোমলিয়ার প্রেসিডেন্ট
নিজস্ব প্রতিবেদক :
সোমালিয়ার প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ হুসেইন রোবলেকে বরখাস্ত করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহামেদ আবদুল্লাহি মোহামেদ। পূর্ববর্তী একটি দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে প্রেসিডেন্ট মোহামেদ প্রধানমন্ত্রী রোবলেকে বরখাস্ত করেছেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে মোহামেদ বলেছেন, জালিয়াতি করে জমি অধিগ্রহণ করার অভিযোগের তদন্তে প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ করায় তাকে বরখাস্ত করে তার ক্ষমতাও স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে রয়টার্সের মন্তব্যের অনুরোধে দেশটির সরকারের মুখপাত্র তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেননি। মোহামেদ ও রোবলের মধ্যে চলা বিরোধের কারণে সোমালিয়ায় কয়েক মাস ধরে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই বিরোধ আল কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কিত জঙ্গি গোষ্ঠী আল শাবাবের বিরুদ্ধে চলা লড়াই থেকে সরকারের মনোযোগ সরে যাওয়ার ঝুঁকি তৈরি করছে বলে মন্তব্য বিশ্লেষকদের। প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী, একজন আরেকজনের বিরুদ্ধে পার্লামেন্ট নির্বাচন ঠেকিয়ে রাখার অভিযোগ করার পরদিন রোবলেকে বরখাস্ত করলেন মোহামেদ। মোহামেদ আরও জানিয়েছেন, তিনি মেরিন বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল আবদিহাকিম মোহামেদ দিরিরকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন। এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য দিরির বা তার মুখপাত্রের সঙ্গে রয়টার্স তাৎক্ষণিভাবে যোগাযোগ করতে পারেনি।

 

 

ঝালকাঠিতে লঞ্চে আগুন
তিন সন্তান আর বাবা-মাকে খুঁজে বেড়াচ্ছেন বরগুনার ফাতেমা
নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা থেকে নানা-নানিকে নিয়ে বরগুনার বাড়িতে ফিরছিলেন তিন ভাইবোন; পথে ঝালকাঠিতে এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকা-ের পর থেকে ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন পাঁচজনই। চার দিন ধরে তাদের খোঁজ না পেয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন ৫০ বছর বয়সী ফাতেমা শাহিদুন। গতকাল সোমবার সকালে তিনি ঝালকাঠি লঞ্চঘাটে আসেন অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে। এই অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের যে বয়সের কথা তিনি শুনেছেন, তার বড় ছেলের বয়সও সে রকমই। ফাতেমা বলেন, তার বাবা মুজফ্ফর হাওলাদার আর মা আমেনা বেগম সৌদি আরব থাকতেন। সম্প্রতি তারা দেশে ফেরেন। আমার বাবা-মাকে আনতে গেছিল আমার তিন ছেলেমেয়ে। বড় ছেলে ওবায়দুল (৩০), বড় মেয়ে কুলসুম (২২), আর ছোট মেয়ে আয়শা (১৯)। তারা তাদের নানা-নানিকে নিয়ে ঢাকা থেকে ফিরছিল। শুক্রবার সকালে তাদের বাড়ি ফেরার কথা। তারা কেউ ফেরে নাই। পরে তিনি শুনতে পান লঞ্চে আগুন লাগার খবর। সেই থেকে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার বাদুরতলা গ্রামের এই স্বজন এবং তাদের অন্য স্বজনরা প্রিজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছেন সম্ভাব্য সব জায়গায়। যদিও ৩৩ জনকে শনাক্ত করতে না পেরে গণকবর দেওয়া হয়েছে ইতোমধ্যেই। নিখোঁজদের সন্ধান পেতে চার দিন ধরে অনেক স্বজন ঝালকাঠি শহরে অবস্থান করছেন। ঝালকাঠি পুলিশের কাছে নিখোঁজ ৪১ জনের নাম দিয়েছেন স্বজনরা। গতকাল সোমবার ঝালকাঠি পৌর মিনিপার্কে ডিএনএ টেস্টের জন্য নিখোঁজদের স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ শুরু করেছে সিআইডি পুলিশ। তাদের পক্ষ থেকে শহরে সকালে মাকিং করা হয়। ঢাকা থেকে বরগুনা যাওয়ার পথে ঝালকাঠিতে সুগন্ধা নদীতে শুক্রবার ভোরের দিকে লঞ্চটিতে আগুন লাগে। এতে তিন ডজনের বেশি মানুষের প্রাণ যায়। নিখোঁজ হন অর্ধশতাধিক। তাছাড়া দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে আছেন আরও অর্ধশতাধিক। আগুন নেভানোর পর শুক্রবার দিনভর তল্লাশি চালিয়ে পোড়া লঞ্চ আর নদী থেকে ৩৬ জনের লাশ উদ্ধার করার কথা জানায় ফায়ার সার্ভিস। আর ঢাকায় নেওয়ার পথে মৃত্যু হয় দগ্ধ এক শিশুর। ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় এক প্রৌঢ়ের। তাদের মধ্যে নয়জনের পরিচয় শনাক্ত করতে পেরেছে পরিবার। অন্যান্যের ঠাঁই হয়েছে গণকবরে।

 

 

 

 

 

সুষ্ঠু নির্বাচনের ‘অন্তরায়’ আওয়ামী লীগ সরকার: খন্দকার মোশাররফ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে ‘সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা ফিরে আসবে না’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে অনিয়ম-সহিংসতার অভিযোগের প্রসঙ্গে টেন গতকাল সোমবার এক আলোচনা সভায় তার এ মন্তব্য আসে। তিনি বলেন, গতকাল (শনিবার) চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শেষ হল। এই নির্বাচনে কী পরিমাণ সন্ত্রাস হতে পারে, কী পরিমাণ মারামারি হতে পারে, কী পরিমাণ মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে, আপনারা দেখেছেন। বর্তমান সরকার দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধবংস করে দিয়েছে। এটা স্পষ্ট যে, এই সরকারের অধীনে গণতন্ত্র আসবে না, এই সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা ফিরে আসবে না। এ রকম অবস্থা থাকলে জনগণ তাদের প্রতিনিধি নির্বাচিত করতে পারবে না। এ থেকে উত্তরণে ‘সরকার পরিবর্তনের বিকল্প নাই’ মন্তব করে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, এই সরকার নিজের অপকর্মের ভারে পতনের মুখে। এখন জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দেশপ্রেমিক সকল শক্তির মধ্যে ইস্পাত কঠিন ঐক্য সৃষ্টি করে গণআন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে। আন্তর্জাতিকভাবেও সরকার ‘চাপে আছে’ মন্তব্য করে এই বিএনপি নেতা বলেন, এখন আমাদের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে একটা ধাক্কা দেওয়া বাকি। সেই ধাক্কাটা দিতে আসুন সকলে সংগঠিত হই।এই সরকারকে হটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নাই। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে একটি ‘নিকৃষ্ট স্বৈরশাসকের দেশ’ হিসেবে চিহ্নিত করছে বলে মন্তব্য করেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, “সব কিছুকে তারা শুধুমাত্র ক্ষমতায় থাকার জন্য ধ্বংস করে দিয়েছে। যেখানে গণতন্ত্র থাকে না, সেখানে মানবাধিকারও থাকে না। আজকে আমেরিকার মত দেশও বাংলাদেশে মানবাধিকার নাই বলে একটা রাষ্ট্রীয় সংস্থাকে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে এবং আমাদের এই সংস্থার উচ্চতর কর্মকর্তাদেরকে নিষেধাজ্ঞার অধীনে এনেছে। এটা অত্যন্ত লজ্জার ব্যাপার। এর মাধ্যমে কী প্রমাণিত হয়? প্রমাণিত হয় যে, বাংলাদেশে যে মানবাধিকার নাই, এটা বাংলাদেশের মানুষের বলার আর দরকার হয় না, সারা বিশ্ব আজকে আমাদেরকে এই তকমাটা দিয়ে দিয়েছে যে, বাংলাদেশে মানবাধিকার নাই। অসুস্থ খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও সরকার ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে’ অভিযোগ করে এর কঠোর সমালোচনা করেন খন্দকার মোশাররফ। বাংলাদেশ সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ রিসার্চ সেন্টারের উদ্যোগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘মানবাধিকার ইস্যু এবং বাংলাদেশের ভাবমূর্তি’ শীর্ষক এই গোলটেবিল আলোচনা হয়। মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সারোয়ার হক মজুমদার শিমুল। সংগঠনের সভাপতি ব্যারিস্টার এম সারোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন ও সাবেক রাষ্ট্রদূত সাকিব আলী বক্তব্য দেন।

 

সাতছড়ি উদ্যান থেকে বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক :
হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অভিযান চালিয়েছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। এ সময় ১৫টি মর্টার শেল, ২৫টি বুস্টার ও ৫১০ রাউন্ড অটো মেশিনগানের গুলি উদ্ধার করা হয়। গতকাল সোমবার বিকেলে চুনারুঘাট থানা চত্বরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান ডিআইজি আসাদুজ্জামান। তিনি বলেন, রোববার রাতে ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে আপেল ত্রিপুরা অমিত (৩৩) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। তিনি খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি এলাকার বাসিন্দা বিশু ত্রিপুরার ছেলে। তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সাতছড়ির গহীন অরণ্যে গোলাবারুদ থাকার তথ্য দেন। তাকে নিয়ে ভোরে সাতছড়িতে অভিযান শুরু করে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। তার দেখানো পৃথক দুটি জায়গা থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান আরও বলেন, এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তিনি কেন, কী উদ্দেশ্যে, কোথা থেকে এসব গোলাবারুদ এনে মজুত করেছেন। তিনি বলেন, কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সদস্যরা ভোর ৪টার দিকে আটক অমিতকে নিয়ে সাতছড়ি আসে। টিকিট কাউন্টারের গেট থেকে প্রায় এক ঘণ্টা হাঁটার পর তিনি একটি পাহাড়ের টিলার নিচে অস্ত্র আছে বলে জানান। সেখানে আমাদের সদস্যরা মাটি খুঁড়ে দুটি বাক্স উদ্ধার করে। অমিতের দেখানো আরও দুটি জায়গায় মাটি খুঁড়ে আরও চারটি বাক্স পাওয়া যায়। পরে আরেকটি টিলার ওপর মাটি খুঁড়ে একটি বড় ড্রামে ভর্তি ১৫টি মর্টার শেল পাওয়া যায়। এ ছাড়া চারটি বক্সে ৫১০ রাউন্ড গুলি পাওয়া যায়। এগুলো অটোমেটিক মেশিনাগানের গুলি। উদ্ধারকৃত গোলাবারুদ সাধারণত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবহার করে না। এগুলো সাধারণত সেনাবাহিনী ব্যবহার করে থাকে। আসাদুজ্জামান বলেন, আটক অমিতকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে। তার দখলে বা তার নলেজে আর কোনো গোলাবারুদ আছে কি না, তা আমরা জানার চেষ্টা করছি। সংবাদ সম্মেলনকালে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কর্মকর্তা ছাড়াও হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলি ও চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলী আশরাফ ও পরিদর্শক (তদন্ত) চম্পক ধাম উপস্থিত ছিলেন। সাতছড়ি বনে এর আগে ২০১৪ সালের ১ জুন থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন দফায় অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে ৩৩৪টি কামান বিধ্বংসী রকেট, ২৯৬টি রকেট চার্জার, একটি রকেট লঞ্চার, ১৬টি মেশিনগান, একটি বেটাগান, ছয়টি এসএলআর, একটি অটোরাইফেল, পাঁচটি মেশিনগানের অতিরিক্ত খালি ব্যারেল, প্রায় ১৬ হাজার রাউন্ড বুলেটসহ বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ উদ্ধার করে র‌্যাব। এর পর আবারও ওই বছরের ১৬ অক্টোবর থেকে চতুর্থ দফার প্রথম পর্যায়ে উদ্যানের গহীন অরণ্যে মাটি খুঁড়ে তিনটি মেশিনগান, চারটি ব্যারেল, আটটি ম্যাগাজিন, ২৫০ গুলির ধারণক্ষমতা সম্পন্ন আটটি বেল্ট ও উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন একটি রেডিও উদ্ধার করা হয়। পরে একই বছরের ১৭ অক্টোবর দুপুরে এসএমজি ও এলএমজির আট হাজার ৩৬০ রাউন্ড, থ্রি নট থ্রি রাইফেলের ১৫২ রাউন্ড, পিস্তলের ৫১৭ রাউন্ড, মেশিনগানের ৪২৫ রাউন্ডসহ মোট ৯ হাজার ৪৫৪ রাউন্ড বুলেট উদ্ধার করা হয়। পঞ্চম দফায় ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি সাতছড়িতে অভিযান পরিচালনা করে ১০টি হাই এক্সক্লুসিভ ৪০ এমএম অ্যান্টি-ট্যাংক রকেট উদ্ধার করা হয়।

 

রাজবাড়ীর ১৪ ইউনিয়নের ৮টিতেই হেরেছে নৌকা
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চতুর্থ ধাপে রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাজবাড়ী সদর উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে ভোট হয়েছে। এর মধ্যে ছয়টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার এবং বাকি আটটিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। যদিও বানীবহ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী শেফালী আক্তার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। নৌকার প্রতীকের বাকি বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন- শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নে নূর মোহাম্মদ ভুঁইয়া, মিজানপুরে মো. টুকু মিজি, খানগঞ্জে শরিফুর রহমান সোহান, মূলঘরে মো. ওহিদুজ্জামান শেখ ও চন্দনী ইউনিয়নে আবদুর রব। বাকি আট ইউনিয়নে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীরা হলেন- বরাট ইউনিয়নে কাজী শামসুদ্দিন (আনারস), পাঁচুরিয়ায় মো. মজিবর রহমান রতন (আনারস), খানখানাপুরে এ কে এম ইকবাল হোসেন (চশমা), বসন্তপুরে জাকির সরদার, আলীপুরে আবু বক্কর সিদ্দিক, রামকান্তপুরে রাজীব মোল্লা বাবু (মোটরসাইকেল), সুলতানপুরে আশিকুর রহমান (ঘোড়া) ও দাদশী ইউনিয়নে দেলোয়ার শেখ দেলো (আনারস)। ভোট গণনা শেষে রোববার রাতে সদর উপজেলার কন্ট্রোল রুম থেকে পাঁচুরিয়া, বরাট ও দাদশী ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ; খানগঞ্জ, চন্দনী ও রামকান্তপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা আতাহার আলী; আলীপুর, বানীবহ ও মিজানপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা স্বপন কুমার সাহা; খানখানাপুর, শহীদ ওহাবপুর ও মূলঘর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান খান এবং বসন্তপুর ও সুলতানপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা খায়ের উদ্দিন বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করেন।

 

হালদা থেকে মৃত ডলফিন উদ্ধার, শরীরে ধরেছে পচন
নিজস্ব প্রতিবেদক :
দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র চট্টগ্রামের হালদা নদী থেকে একটি মৃত ডলফিন উদ্ধার করেছে হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন। গতকাল সোমবার দুপুরে হাটহাজরীর ১৩নং দক্ষিণ মাদার্শা ইউনিয়নের হালদা নদীর আকবরীয়া এলাকায় থেকে ডলফিনটি উদ্ধার করা হয়। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শহীদুল আলমজানান, ডলফিনটি নদী থেকে উদ্ধার করে উত্তর মার্দাশা রাম দাস মুন্সির হাট এলাকায় মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, আকবরীয়া এলাকায় মৃত অবস্থায় ডলফিনটি নদীতে ভাসতে দেখতে পেয়ে প্রশাসনকে জানানো হয়। প্রশাসন নদী থেকে মৃত এবং প্রায় পচে যাওয়া ডলফিনটি উদ্ধার করে। হালদা গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মনজুরুল কিবরীয়া জানান, হালদা থেকে এ পর্যন্ত ৩৩টি ডলফিন মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার ডলফিনের দেহটি পচে যাওয়াতে মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করা সম্ভব হয়নি। ডলফিনটির দৈর্ঘ্য তিন ফুট এবং ওজন প্রায় ১৫ কেজি।

 

 

 

 

 

 

 

কক্সবাজারে নারী ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার ৩ জন রিমান্ডে
নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজারে এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার ৩ জনের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল সোমবার সকালে এ ৩ জনকে কক্সবাজার সদর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠায় তদন্তকারি সংস্থা ট্যুরিস্ট পুলিশ। এ আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানানো হলেও ২ দিনের রিমান্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত। জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামিরা হলোÑ কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ বাহারছড়া এলাকার আবুল বশরের ছেলে রেজাউল করিম, একই এলাকার সালেহ আহমদের ছেলে মেহেদী হাসান এবং চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের উলুবনিয়া গ্রামের মোক্তার আহমদের ছেলে মামুনুর রশীদ। তারা ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগী ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। কক্সবাজারে ট্যুরিস্ট পুলিশের এসপি মো. জিল্লুর রহমান বলেন, নারী ধর্ষণের মূল হোতা আশিকসহ এ পর্যন্ত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আশিককে ঢাকায় আদালতে পাঠিয়েছে র্যা ব। তাকে কক্সবাজারে পাঠাতে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কক্সবাজার শহরের শীর্ষ সন্ত্রাসী আশিকুল ইসলাম আশিকের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী চক্র এক নারীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। র্যা ব অভিযান চালিয়ে কক্সবাজারের হোটেল জিয়া গেস্ট ইন থেকে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে বলে সাংবাদিকদের জানানো হয়। ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে হোটেলের ম্যানেজার রিয়াজ উদ্দিন ছোটনকে আটক করা হয়েছিল। এ ঘটনায় ২৩ ডিসেম্বর রাতে কক্সবাজার সদর থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ৩ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেন ধর্ষণের শিকার নারীর স্বামী। আসামিরা হলেনÑ আশিকুর রহমান ও তার তিন সহযোগী ই¯্রাফিল হুদা ওরফে জয়া ও মেহেদী হাসান ওরফে বাবু এবং রিয়াজ উদ্দিন ছোটন। মামলাটি তদন্ত করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

 

 

 

ঘোড়া ও হাতপাখার সিল মারা ব্যালট পাওয়া গেলো ঝোপের আড়ালে
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চতুর্থ দফার ইউপি নির্বাচনে ভোট গ্রহণের পর দিন সোনাগাজীর সদর ইউনিয়নের ছাড়াইতকান্দি হোসাইনিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রের পাশে ঝোপের আড়ালে নৌকার প্রতিদ্বেন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের পক্ষে সিল মারা ব্যালট পাওয়া গেছে। এসব ব্যালটের সংখ্যা অন্তত ২০০টি। স্থানীয়রা জানান, ব্যালটগুলোতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সামছুল আরেফিনের ঘোড়া প্রতীক ও ইসলামি আন্দোলনের ফখরুদ্দিনের হাতপাখার প্রতীকের সিল মারা রয়েছে। পাশে একটি সিলমোহরও দেখা গেছে। ব্যালটগুলোর অপর পাতায় ভোটকেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তার স্বাক্ষর রয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ব্যালটগুলো গ্রামবাসী উদ্ধার করলেও নির্বাচন কর্মকর্তা অথবা প্রশাসনের পক্ষে থেকে সেগুলো জব্দ করার কোনো উদ্যেগ নেওয়া হয়নি। স্থানীয় রাহাত ও নুর আলম বলেন, ‘রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালে নৌকা প্রতীকের পক্ষে বহিরাগতরা কেন্দ্র দখল করে সিল মারেন। আমরা গ্রামবাসী প্রতিবাদ করলেও প্রশাসনের সহযোগিতা পায়নি। প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে জাল ভোট দিতে সুযোগ না দেওয়ার অনুরোধ করলেও তিনি আমাদের পাত্তা দেননি। ভোট গণনার পর ফলাফল কেন্দ্রে প্রকাশের অনুরোধ করলেও তিনি আমলে নেয়নি।’ তবে অভিযোগ অস্বীকার করে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম বলেন, ‘কাউকে অনৈতিক সুবিদা দেওয়া হয়নি। ভোট গণনা শেষে সব কিছু রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে বুঝিয়ে দিয়েছি। কীভাবে সিলমারা ব্যালট বাইরে গেলো তা রিটার্নিং কর্মকর্তা বলতে পারবেন।’ এদিকে ভোট কেন্দ্রের ফলাফল পুনরায় গণনার দাবি নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই ওয়ার্ডের সাদারণ সদস্য পদপ্রার্থী এনামুল হক শিফন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী মঞ্জু রানী দেবী। তাদের দাবি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে ফলাফলে বৈধ ও বাতিল ভোটের সংখ্যার গরমিল রয়েছে এবং ফলাফল শিটে ফ্লুইড ব্যবহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে রিটানিং কর্মকর্তা তুর্য সাহা বলেন, ব্যালট কীভাবে বাইরে গেলো, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা বলতে পারবে। ঘটনাটি উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ অবহিত করা হয়েছে।

 

 

 

 

শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীর মায়ের রক্তাক্ত লাশ!
নিজস্ব প্রতিবেদক :
পুরান ঢাকার আরমানিটোলা এলাকায় আহামেদ বাওয়ানী স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কক্ষ থেকে পারভীন বেগম (৪৭) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির অফিস খোলার পর কর্মচারীরা মেঝেতে লাশটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে। মেঝেতে পড়ে থাকা পারভীনের মুখমন্ডল রক্তাক্ত দেখা গেছে। পাশেই ইঁদুর নিধনের বিষ পাওয়া গেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। জানা গেছে, পারভীনের ছোট মেয়ে ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। বড় মেয়ে বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ছেলে কলেজে পড়েন। পুলিশের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার ইলিয়াস হোসেন বলেন, পারভীনের মৃত্যুটি রহস্যজনক। তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি বিষপানে মারা গেছেন, তা নিশ্চিত হতে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। লাশের পাশেই একটি কাগজ পাওয়া গেছে, যাতে পারভীনের নাম-ঠিকানা লেখা রয়েছে। ওই কাগজ অনুযায়ী তার বাসা পুরান ঢাকার সিদ্দিকবাজার এলাকায়। শ্রেণিকক্ষে লাশ পাওয়ার খবরে স্কুলটার সামনে ভিড় করেন অভিভাবকেরা। তারা বলছিলেন, কেউ আত্মহত্যা করতে চাইলে স্কুলের কক্ষে আসার কথা নয়। ওই নারীকে হত্যা করা হতে পারে। স্কুলটির একজন নিরাপত্তাকর্মী আবদুল গাফফার বলছিলেন, রাতে স্কুলের সব গেট বন্ধ থাকে। তাই ওই নারী হয়তো আগের দিন (রোববার) স্কুলে ঢুকে আত্মহত্যা করতে পারেন। তবে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, কক্ষটির দরজা লাগানো হয়নি। নির্মানকাজের সিমেন্টের বস্তার স্তুপ সাজানো সেখানে। লোকজনেরও চলাফেরা রয়েছে সেখানে। এমন পরিস্থিতিতে কেউ সেখানে গিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করলেও দেখার কথা। পারভীন বেগমের ব্যবসায়ী স্বামী আবদুল বাসেত মারা গেছেন কয়েক বছর আগে। তবে ঘটনাস্থলে তার সন্তানেরাসহ অন্য স্বজনেরা এসেছেন। তাৎক্ষণিকভাবে কেউ মুখ খুলতে রাজি হননি। অবশ্য একজন স্বজন জানিয়েছেন, আগামী মাসেই পারভীনের বড় মেয়ের বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করা। কোন পরিস্থিতিতে এমন ঘটনা ঘটল, তারা কিছুই বুঝতে পারছেন না।

 

 

পটুয়াখালীতে ভোটের পর সংঘর্ষ, গুলিতে একজনের মৃত্যু
নিজস্ব প্রতিবেদক :
পটুয়াখালীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট পুনরায় গণনা নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষের সময় গুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুল খালেক (৫২) জেলার রাঙ্গাবালী উপজেলার নয়ারচর গ্রামের হাফেজ মিস্ত্রির ছেলে। রোববার সন্ধ্যায় চরমোন্তাজ ইউনিয়নে নয়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে তিনি মারা যান বলে চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই মো. মিজানুর রহমান জানান। স্থানীয়দের ভাষ্য, ভোট শেষে গণনার পর ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য প্রার্থী মো. আলমগীর মালকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। প্রতিপক্ষ মো. জিয়াউর রহমানের সমর্থকরা ভোট পুনরায় গণনার দাবি জানান। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে কেন্দ্রের মধ্যেই দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা গুলি করেন। সংঘর্ষের সময় আবদুল খালেক গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। তবে পুলিশ বলছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে তার মৃত্যু হয়নি। এসআই মিজান বলেন, ঘটনাস্থলে উপস্থিত আনসার, বিজিবি, পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড গুলি চালান। তবে মিজানের শরীরে যে দুটি গুলির চিহ্ন রয়েছে তা দেখে বোঝা যাচ্ছে আমাদের ফোর্সের গুলি না। অধিকতর তদন্তের জন্য লাশের ময়নাতদন্ত করতে পটুয়াখালী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে বিজয়ী ঘোষিত সদস্য প্রার্থী মো. আলমগীর মাল বলেন, “ভোট গণনা শেষে আমাকে বিজয়ী ঘোষণা করলে আমি চলে আসি। পরে শুনেছি সংঘর্ষ হয়েছে। গুলিতে একজন মারা গেছে। তিনি এর বেশি কিছু বলতে চাননি। কী নিয়ে উত্তেজনা সে সম্পর্কেও তিনি কিছু বলতে চাননি। পরাজিত প্রার্থী মো. জিয়াউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। রোববার দেশের ৮৩৬ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হয়। তাতে জয়-পরাজয়ের দ্বন্দ্বে বিভিন্ন জায়গায় সংঘর্ষ হয়; মারা যান অন্তত তিনজন।

 

সিলেটে ‘জামায়াত প্রার্থীর সমর্থক’ ও পুলিশের সংঘর্ষে একজন নিহত
নিজস্ব প্রতিবেদক :
সিলেটে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত জামায়াত ইসলামীর প্রার্থীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুস সালাম (৪৫) সাইকেল-রিকশার মেকানিক ছিলেন। জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার রামপা গ্রামে তার বাড়ি। রোববার রাতে উপজেলার বৈটিকর বাজারে সংঘর্ষ হলে তিনি মারা যান বলে জানান গোলাপগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশিদ। ওসি স্থানীয়দের বরাতে বলেন, রোববার ফুলবাড়ি ইউনিয়নে ভোট গণনা শেষে রাত ৮টার দিকে ফল ঘোষণা করা হয়। তাতে নৌকার প্রার্থী আবদুল হানিফকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়। কিন্তু ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দুটি কেন্দ্রের ফল প্রত্যাখ্যান করেন জামায়াত ইসলামীর চেয়ারম্যান প্রার্থী এমরান হোসেনের লোকজন। তারা বৈটিকর বাজারে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন। পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে চাইলে তুমুল সংঘর্ষ বাধে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও গুলি নিক্ষেপ করে। ওসি বলেন, সংঘর্ষকালে আবদুস সালাম আহত হন। তার বুক ও পেটে ছররা গুলির চিহ্ন দেখা গেছে। পরে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি বলেন, প্রায় দেড় ঘণ্টার সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত লোক আহত হয়েছেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাবের একাধিক দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষের পরে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয় বলে জানান ওসি। এ বিষয়ে জানার জন্য জামায়াত প্রার্থী এমরান হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে বন্ধ পাওয়া গেছে।

 

নারায়ণগঞ্জে বাসে ট্রেনের ধাক্কা: মৃত্যু বেড়ে ৪
নিজস্ব প্রতিবেদক :
নারায়ণগঞ্জ শহরে বাসে ট্রেনের ধাক্কায় আহতদের মধ্যে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গতকাল সোমবার ভোরে মেজবাহ উদ্দিন (৬৫) নামে এই ব্যক্তি মারা যান বলে হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান। মেজবাহর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ শহরের ১ নম্বর রেলগেইট এলাকায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে একটি বাস উঠে পড়ে। এ সময় ট্রেন এসে ধাক্কা দিলে তিনজন ঘটনাস্থলে নিহত হন। তাছাড়া আহত হন আরও ১০ জন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মোকলেছুর রহমান, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটা মামলা করেছে। তাছাড়া রেল কর্তৃপক্ষ একটা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করেছেন সোমলিয়ার প্রেসিডেন্ট
নিজস্ব প্রতিবেদক :
সোমালিয়ার প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ হুসেইন রোবলেকে বরখাস্ত করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহামেদ আবদুল্লাহি মোহামেদ। পূর্ববর্তী একটি দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে প্রেসিডেন্ট মোহামেদ প্রধানমন্ত্রী রোবলেকে বরখাস্ত করেছেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে মোহামেদ বলেছেন, জালিয়াতি করে জমি অধিগ্রহণ করার অভিযোগের তদন্তে প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ করায় তাকে বরখাস্ত করে তার ক্ষমতাও স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে রয়টার্সের মন্তব্যের অনুরোধে দেশটির সরকারের মুখপাত্র তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেননি। মোহামেদ ও রোবলের মধ্যে চলা বিরোধের কারণে সোমালিয়ায় কয়েক মাস ধরে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই বিরোধ আল কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কিত জঙ্গি গোষ্ঠী আল শাবাবের বিরুদ্ধে চলা লড়াই থেকে সরকারের মনোযোগ সরে যাওয়ার ঝুঁকি তৈরি করছে বলে মন্তব্য বিশ্লেষকদের। প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী, একজন আরেকজনের বিরুদ্ধে পার্লামেন্ট নির্বাচন ঠেকিয়ে রাখার অভিযোগ করার পরদিন রোবলেকে বরখাস্ত করলেন মোহামেদ। মোহামেদ আরও জানিয়েছেন, তিনি মেরিন বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল আবদিহাকিম মোহামেদ দিরিরকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন। এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য দিরির বা তার মুখপাত্রের সঙ্গে রয়টার্স তাৎক্ষণিভাবে যোগাযোগ করতে পারেনি।

 

 

ঝালকাঠিতে লঞ্চে আগুন
তিন সন্তান আর বাবা-মাকে খুঁজে বেড়াচ্ছেন বরগুনার ফাতেমা
নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা থেকে নানা-নানিকে নিয়ে বরগুনার বাড়িতে ফিরছিলেন তিন ভাইবোন; পথে ঝালকাঠিতে এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকা-ের পর থেকে ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন পাঁচজনই। চার দিন ধরে তাদের খোঁজ না পেয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন ৫০ বছর বয়সী ফাতেমা শাহিদুন। গতকাল সোমবার সকালে তিনি ঝালকাঠি লঞ্চঘাটে আসেন অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে। এই অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের যে বয়সের কথা তিনি শুনেছেন, তার বড় ছেলের বয়সও সে রকমই। ফাতেমা বলেন, তার বাবা মুজফ্ফর হাওলাদার আর মা আমেনা বেগম সৌদি আরব থাকতেন। সম্প্রতি তারা দেশে ফেরেন। আমার বাবা-মাকে আনতে গেছিল আমার তিন ছেলেমেয়ে। বড় ছেলে ওবায়দুল (৩০), বড় মেয়ে কুলসুম (২২), আর ছোট মেয়ে আয়শা (১৯)। তারা তাদের নানা-নানিকে নিয়ে ঢাকা থেকে ফিরছিল। শুক্রবার সকালে তাদের বাড়ি ফেরার কথা। তারা কেউ ফেরে নাই। পরে তিনি শুনতে পান লঞ্চে আগুন লাগার খবর। সেই থেকে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার বাদুরতলা গ্রামের এই স্বজন এবং তাদের অন্য স্বজনরা প্রিজনদের খুঁজে বেড়াচ্ছেন সম্ভাব্য সব জায়গায়। যদিও ৩৩ জনকে শনাক্ত করতে না পেরে গণকবর দেওয়া হয়েছে ইতোমধ্যেই। নিখোঁজদের সন্ধান পেতে চার দিন ধরে অনেক স্বজন ঝালকাঠি শহরে অবস্থান করছেন। ঝালকাঠি পুলিশের কাছে নিখোঁজ ৪১ জনের নাম দিয়েছেন স্বজনরা। গতকাল সোমবার ঝালকাঠি পৌর মিনিপার্কে ডিএনএ টেস্টের জন্য নিখোঁজদের স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ শুরু করেছে সিআইডি পুলিশ। তাদের পক্ষ থেকে শহরে সকালে মাকিং করা হয়। ঢাকা থেকে বরগুনা যাওয়ার পথে ঝালকাঠিতে সুগন্ধা নদীতে শুক্রবার ভোরের দিকে লঞ্চটিতে আগুন লাগে। এতে তিন ডজনের বেশি মানুষের প্রাণ যায়। নিখোঁজ হন অর্ধশতাধিক। তাছাড়া দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে আছেন আরও অর্ধশতাধিক। আগুন নেভানোর পর শুক্রবার দিনভর তল্লাশি চালিয়ে পোড়া লঞ্চ আর নদী থেকে ৩৬ জনের লাশ উদ্ধার করার কথা জানায় ফায়ার সার্ভিস। আর ঢাকায় নেওয়ার পথে মৃত্যু হয় দগ্ধ এক শিশুর। ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় এক প্রৌঢ়ের। তাদের মধ্যে নয়জনের পরিচয় শনাক্ত করতে পেরেছে পরিবার। অন্যান্যের ঠাঁই হয়েছে গণকবরে।

 

 

 

 

 

সুষ্ঠু নির্বাচনের ‘অন্তরায়’ আওয়ামী লীগ সরকার: খন্দকার মোশাররফ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে ‘সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা ফিরে আসবে না’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে অনিয়ম-সহিংসতার অভিযোগের প্রসঙ্গে টেন গতকাল সোমবার এক আলোচনা সভায় তার এ মন্তব্য আসে। তিনি বলেন, গতকাল (শনিবার) চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শেষ হল। এই নির্বাচনে কী পরিমাণ সন্ত্রাস হতে পারে, কী পরিমাণ মারামারি হতে পারে, কী পরিমাণ মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে, আপনারা দেখেছেন। বর্তমান সরকার দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধবংস করে দিয়েছে। এটা স্পষ্ট যে, এই সরকারের অধীনে গণতন্ত্র আসবে না, এই সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা ফিরে আসবে না। এ রকম অবস্থা থাকলে জনগণ তাদের প্রতিনিধি নির্বাচিত করতে পারবে না। এ থেকে উত্তরণে ‘সরকার পরিবর্তনের বিকল্প নাই’ মন্তব করে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, এই সরকার নিজের অপকর্মের ভারে পতনের মুখে। এখন জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দেশপ্রেমিক সকল শক্তির মধ্যে ইস্পাত কঠিন ঐক্য সৃষ্টি করে গণআন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে। আন্তর্জাতিকভাবেও সরকার ‘চাপে আছে’ মন্তব্য করে এই বিএনপি নেতা বলেন, এখন আমাদের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে একটা ধাক্কা দেওয়া বাকি। সেই ধাক্কাটা দিতে আসুন সকলে সংগঠিত হই।এই সরকারকে হটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নাই। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে একটি ‘নিকৃষ্ট স্বৈরশাসকের দেশ’ হিসেবে চিহ্নিত করছে বলে মন্তব্য করেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, “সব কিছুকে তারা শুধুমাত্র ক্ষমতায় থাকার জন্য ধ্বংস করে দিয়েছে। যেখানে গণতন্ত্র থাকে না, সেখানে মানবাধিকারও থাকে না। আজকে আমেরিকার মত দেশও বাংলাদেশে মানবাধিকার নাই বলে একটা রাষ্ট্রীয় সংস্থাকে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে এবং আমাদের এই সংস্থার উচ্চতর কর্মকর্তাদেরকে নিষেধাজ্ঞার অধীনে এনেছে। এটা অত্যন্ত লজ্জার ব্যাপার। এর মাধ্যমে কী প্রমাণিত হয়? প্রমাণিত হয় যে, বাংলাদেশে যে মানবাধিকার নাই, এটা বাংলাদেশের মানুষের বলার আর দরকার হয় না, সারা বিশ্ব আজকে আমাদেরকে এই তকমাটা দিয়ে দিয়েছে যে, বাংলাদেশে মানবাধিকার নাই। অসুস্থ খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও সরকার ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে’ অভিযোগ করে এর কঠোর সমালোচনা করেন খন্দকার মোশাররফ। বাংলাদেশ সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ রিসার্চ সেন্টারের উদ্যোগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘মানবাধিকার ইস্যু এবং বাংলাদেশের ভাবমূর্তি’ শীর্ষক এই গোলটেবিল আলোচনা হয়। মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সারোয়ার হক মজুমদার শিমুল। সংগঠনের সভাপতি ব্যারিস্টার এম সারোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন ও সাবেক রাষ্ট্রদূত সাকিব আলী বক্তব্য দেন।

 

সাতছড়ি উদ্যান থেকে বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক :
হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অভিযান চালিয়েছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। এ সময় ১৫টি মর্টার শেল, ২৫টি বুস্টার ও ৫১০ রাউন্ড অটো মেশিনগানের গুলি উদ্ধার করা হয়। গতকাল সোমবার বিকেলে চুনারুঘাট থানা চত্বরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান ডিআইজি আসাদুজ্জামান। তিনি বলেন, রোববার রাতে ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে আপেল ত্রিপুরা অমিত (৩৩) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। তিনি খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি এলাকার বাসিন্দা বিশু ত্রিপুরার ছেলে। তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সাতছড়ির গহীন অরণ্যে গোলাবারুদ থাকার তথ্য দেন। তাকে নিয়ে ভোরে সাতছড়িতে অভিযান শুরু করে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। তার দেখানো পৃথক দুটি জায়গা থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান আরও বলেন, এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তিনি কেন, কী উদ্দেশ্যে, কোথা থেকে এসব গোলাবারুদ এনে মজুত করেছেন। তিনি বলেন, কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সদস্যরা ভোর ৪টার দিকে আটক অমিতকে নিয়ে সাতছড়ি আসে। টিকিট কাউন্টারের গেট থেকে প্রায় এক ঘণ্টা হাঁটার পর তিনি একটি পাহাড়ের টিলার নিচে অস্ত্র আছে বলে জানান। সেখানে আমাদের সদস্যরা মাটি খুঁড়ে দুটি বাক্স উদ্ধার করে। অমিতের দেখানো আরও দুটি জায়গায় মাটি খুঁড়ে আরও চারটি বাক্স পাওয়া যায়। পরে আরেকটি টিলার ওপর মাটি খুঁড়ে একটি বড় ড্রামে ভর্তি ১৫টি মর্টার শেল পাওয়া যায়। এ ছাড়া চারটি বক্সে ৫১০ রাউন্ড গুলি পাওয়া যায়। এগুলো অটোমেটিক মেশিনাগানের গুলি। উদ্ধারকৃত গোলাবারুদ সাধারণত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবহার করে না। এগুলো সাধারণত সেনাবাহিনী ব্যবহার করে থাকে। আসাদুজ্জামান বলেন, আটক অমিতকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে। তার দখলে বা তার নলেজে আর কোনো গোলাবারুদ আছে কি না, তা আমরা জানার চেষ্টা করছি। সংবাদ সম্মেলনকালে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কর্মকর্তা ছাড়াও হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলি ও চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলী আশরাফ ও পরিদর্শক (তদন্ত) চম্পক ধাম উপস্থিত ছিলেন। সাতছড়ি বনে এর আগে ২০১৪ সালের ১ জুন থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন দফায় অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে ৩৩৪টি কামান বিধ্বংসী রকেট, ২৯৬টি রকেট চার্জার, একটি রকেট লঞ্চার, ১৬টি মেশিনগান, একটি বেটাগান, ছয়টি এসএলআর, একটি অটোরাইফেল, পাঁচটি মেশিনগানের অতিরিক্ত খালি ব্যারেল, প্রায় ১৬ হাজার রাউন্ড বুলেটসহ বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ উদ্ধার করে র‌্যাব। এর পর আবারও ওই বছরের ১৬ অক্টোবর থেকে চতুর্থ দফার প্রথম পর্যায়ে উদ্যানের গহীন অরণ্যে মাটি খুঁড়ে তিনটি মেশিনগান, চারটি ব্যারেল, আটটি ম্যাগাজিন, ২৫০ গুলির ধারণক্ষমতা সম্পন্ন আটটি বেল্ট ও উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন একটি রেডিও উদ্ধার করা হয়। পরে একই বছরের ১৭ অক্টোবর দুপুরে এসএমজি ও এলএমজির আট হাজার ৩৬০ রাউন্ড, থ্রি নট থ্রি রাইফেলের ১৫২ রাউন্ড, পিস্তলের ৫১৭ রাউন্ড, মেশিনগানের ৪২৫ রাউন্ডসহ মোট ৯ হাজার ৪৫৪ রাউন্ড বুলেট উদ্ধার করা হয়। পঞ্চম দফায় ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি সাতছড়িতে অভিযান পরিচালনা করে ১০টি হাই এক্সক্লুসিভ ৪০ এমএম অ্যান্টি-ট্যাংক রকেট উদ্ধার করা হয়।

 

রাজবাড়ীর ১৪ ইউনিয়নের ৮টিতেই হেরেছে নৌকা
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চতুর্থ ধাপে রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাজবাড়ী সদর উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে ভোট হয়েছে। এর মধ্যে ছয়টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার এবং বাকি আটটিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। যদিও বানীবহ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী শেফালী আক্তার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। নৌকার প্রতীকের বাকি বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন- শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নে নূর মোহাম্মদ ভুঁইয়া, মিজানপুরে মো. টুকু মিজি, খানগঞ্জে শরিফুর রহমান সোহান, মূলঘরে মো. ওহিদুজ্জামান শেখ ও চন্দনী ইউনিয়নে আবদুর রব। বাকি আট ইউনিয়নে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীরা হলেন- বরাট ইউনিয়নে কাজী শামসুদ্দিন (আনারস), পাঁচুরিয়ায় মো. মজিবর রহমান রতন (আনারস), খানখানাপুরে এ কে এম ইকবাল হোসেন (চশমা), বসন্তপুরে জাকির সরদার, আলীপুরে আবু বক্কর সিদ্দিক, রামকান্তপুরে রাজীব মোল্লা বাবু (মোটরসাইকেল), সুলতানপুরে আশিকুর রহমান (ঘোড়া) ও দাদশী ইউনিয়নে দেলোয়ার শেখ দেলো (আনারস)। ভোট গণনা শেষে রোববার রাতে সদর উপজেলার কন্ট্রোল রুম থেকে পাঁচুরিয়া, বরাট ও দাদশী ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ; খানগঞ্জ, চন্দনী ও রামকান্তপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা আতাহার আলী; আলীপুর, বানীবহ ও মিজানপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা স্বপন কুমার সাহা; খানখানাপুর, শহীদ ওহাবপুর ও মূলঘর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান খান এবং বসন্তপুর ও সুলতানপুর ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা খায়ের উদ্দিন বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করেন।

 

হালদা থেকে মৃত ডলফিন উদ্ধার, শরীরে ধরেছে পচন
নিজস্ব প্রতিবেদক :
দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র চট্টগ্রামের হালদা নদী থেকে একটি মৃত ডলফিন উদ্ধার করেছে হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন। গতকাল সোমবার দুপুরে হাটহাজরীর ১৩নং দক্ষিণ মাদার্শা ইউনিয়নের হালদা নদীর আকবরীয়া এলাকায় থেকে ডলফিনটি উদ্ধার করা হয়। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শহীদুল আলমজানান, ডলফিনটি নদী থেকে উদ্ধার করে উত্তর মার্দাশা রাম দাস মুন্সির হাট এলাকায় মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, আকবরীয়া এলাকায় মৃত অবস্থায় ডলফিনটি নদীতে ভাসতে দেখতে পেয়ে প্রশাসনকে জানানো হয়। প্রশাসন নদী থেকে মৃত এবং প্রায় পচে যাওয়া ডলফিনটি উদ্ধার করে। হালদা গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মনজুরুল কিবরীয়া জানান, হালদা থেকে এ পর্যন্ত ৩৩টি ডলফিন মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার ডলফিনের দেহটি পচে যাওয়াতে মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করা সম্ভব হয়নি। ডলফিনটির দৈর্ঘ্য তিন ফুট এবং ওজন প্রায় ১৫ কেজি।

 

 

 

 

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category