• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
‘মুজিবনগর দিবস’ বাঙালির পরাধীনতার শৃঙ্খলমুক্তির ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন: প্রধানমন্ত্রী শ্রম আইনের মামলায় ড. ইউনূসের জামিনের মেয়াদ বাড়ল জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় গুরুত্ব থাকবে জনস্বাস্থ্যেও: পরিবেশ মন্ত্রী অনিবন্ধিত অনলাইনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনায় বিকল্পভাবে পণ্য আমদানির চেষ্টা করছি: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী স্বাস্থ্যসেবায় অভূতপূর্ব অর্জন বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে: রাষ্ট্রপতি শান্তি আলোচনায় কেএনএফকে বিশ্বাস করেছিলাম, তারা ষড়যন্ত্র করেছে: সেনাপ্রধান বন কর্মকর্তার খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতে কাজ করছে মন্ত্রণালয়: পরিবেশমন্ত্রী পুরান ঢাকার রাসায়নিক গুদাম: ১৪ বছর ধরে সরানোর অপেক্ষা ভাসানটেক বস্তিতে ফায়ার হাইড্রেন্ট স্থাপন করা হবে : মেয়র আতিক

কুমিল্লায় বোনের প্রেমিককে হত্যার দায়ে ভাইসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

Reporter Name / ১২ Time View
Update : সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কুমিল্লার হোমনায় বোনের সঙ্গে প্রেম করায় ফয়সল (২২) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যার দায়ে প্রেমিকার ভাই ও মামাতো ভাইকে মৃত্যুদ- দিয়েছেন কুমিল্লার আদালত। আজ সোমবার কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতের বিচারক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এ রায় দেন। মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কুমিল্লা হোমনা উপজেলার রাজনগর গ্রামের মো. ফুল মিঞার ছেলে মো. শামীম মিয়া (২৪) ও একই উপজেলার সাফলেজি গ্রামের মো. বেদন মিয়ার ছেলে মো. দুলাল মিয়া (২০)। মামলার বিবরণে জানা যায়, হত্যার শিকার ফয়সলের সঙ্গে আসামি শামীমের বোন কলেজছাত্রী মেহেদী আক্তারের (১৮) প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ২০২০ সালের ৫ জুন ফয়সল তার মামা নজরুল মিয়ার ছাদে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় তার মোবাইল ফোনে আসামি শামীম কল করে বলেন আমিরুল ইসলাম উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে যাওয়ার জন্য। তখন ফয়সাল কাউকে কিছু না বলে শামীমের কাছে চলে যান। বাড়িতে ফিরে না আসায় স্থানীয় লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। কিন্তু না পেয়ে নিহতের বাবা মো. মকবুল হোসেন হোমনা থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে প্রথমে আসামি মো. শামীম মিয়াকে গ্রেপ্তার করেন। শামীম জানায়, সে ও দুলালসহ প্রথমে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে পরে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে ফয়সলকে হত্যা করেন। এরপর লাশটি বিদ্যালয়ের মাঠে মাটিতে পুঁতে রাখা হয়। এ ব্যাপারে ২০২০ সালের ১৩ জুন নিহত ফয়সলের বড় বোন হোমনা থানার রাজনগর গ্রামের হারুন মিয়ার স্ত্রী সালমা আক্তার বাদী হয়ে মো. শামীম মিয়াসহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে হোমনা থানায় মামলা দায়ের করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি মো. শামীম মিয়া ও মো. দুলাল মিয়াকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেন। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ২০২১ সালের ১৮ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। আসামি শামীম ও দুলালের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের মৃত্যুদ- এবং একই সঙ্গে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। রায় ঘোষণাকালে দুই আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষে নিযুক্ত কৌঁসুলি শেখ মাসুদ ইকবাল মজুমদার ও মো. নূরুল ইসলাম বলেন, আমরা আশা করছি উচ্চ আদালত এ রায় বহাল রেখে দ্রুত বাস্তবায়ন করবেন। অপরদিকে আসামিপক্ষে নিযুক্ত কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট বিমল কৃষ্ণ দেবনাথ বলেন, এ রায়ে আসামিপক্ষ অসন্তুষ্ট ও ক্ষুব্ধ। রায়ের কপি হাতে পেলে শিগগিরই উচ্চ আদালতে আপিল করব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category