• সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
ঈদযাত্রায় বাড়তি ভাড়া আদায় করলে ব্যবস্থা বেনজীরের অঢেল সম্পদে হতবাক হাইকোর্ট তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুয়েক সময় আমাদের ট্রলার-টহল বোটে মিয়ানমারের গুলি লেগেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম-নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান রাষ্ট্রপতির সহকর্মীকে হত্যাকারী কনস্টেবল মানসিক ভারসাম্যহীন দাবি পরিবারের বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী চেকিংয়ের জন্য গাড়ি থামানো চাঁদাবাজির অংশ নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সারা দেশে ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা কতজন জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট বান্দরবান থেকে কেএনএফের ৩১ জনকে পাঠানো হলো চট্টগ্রাম কারাগারে

জ্ঞানভিত্তিক ভবিষ্যতে রোবট থাকবে মূল কেন্দ্রবিন্দুতে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

Reporter Name / ৬১ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
জ্ঞানভিত্তিক ভবিষ্যতে রোবট মূল কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেছেন, ঝুঁকিপূর্ণ কাজের পাশাপাশি জ্ঞানভিত্তিক উদ্ভাবনী কাজের জন্য বাংলাদেশের শিশুরা রোবট তৈরি করবে। বিশ্বের উন্নত দেশের চেয়ে আমাদের শিশুরা মোটেই পিছিয়ে নেই। তারাও মেধাবী। তবে তাদের জন্য সুযোগ তৈরি করে দিতে হবে। আজ মঙ্গলবার তরুণদের অংশগ্রহণে পঞ্চম বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়নে এ অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে রোবটিয়ারদের প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী। একই সঙ্গে বুয়েটের রোবটিকস ল্যাব যেন তারা ব্যবহার করতে পারেন সে বিষয়েও উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, খেলায় অংশগ্রহণ করলেই জয় বা পরাজয় নির্ধারণ করা যায়। আমাদের দেশের তরুণরা ইউরোপের থেকে পিছিয়ে নেই এবং তারা মেধাবী। তাদের শুধু সুযোগ তৈরি করে দেওয়া দরকার। আর এ সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা ও আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত আইসিটি বিষয় যুক্ত করা হয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীরা যেন হাতে-কলমে শিখতে পারে সেজন্য স্কুল-কলেজে ১৩ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন, গত ১৮ অক্টোবর নতুন করে পাঁচ হাজার কম্পিউটার ল্যাবের পাশাপাশি ৩০০ শেখ রাসেল স্কুল অফ ফিউচার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এখন ষষ্ঠ শ্রেণির একজন শিক্ষার্থী কম্পিউটার ল্যাবে যেতে পারছে। প্রোগ্রামিং, কোডিং শিখতে পারছে, কম্পিউটার বিজ্ঞান সম্পর্কে হাতে-কলমে জ্ঞানার্জন করতে পারছে। অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, উদ্ভাবনের দিকে সব মানুষকে অনুপ্রেরণা দেওয়াই আমাদের কাজ। তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুবিধাসমূহ কাজে লাগানোর জন্য দক্ষ মানবশক্তি তৈরির একটি অসাধারণ প্রত্যয় এবং পরিকল্পনা বাংলাদেশ সরকারের আছে। সেটি বাস্তবায়নে সবসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বিভাগের কাজের সঙ্গে ঘনিষ্টভাবে সম্পৃক্ত থাকে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু। এতে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মোস্তফা কামাল। এছাড়া শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপারসন ড. সেঁজুতি রহমান এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান। বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের সভাপতি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. লাফিফা জামাল স্বাগত বক্তব্য রাখেন। ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আইসিটি শিল্পের বিকাশে দেশের স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের রোবটিক্সে আগ্রহী করে গড়ে তোলার উদ্দেশে নানা উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। ২৪তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে ২৫ ও ২৬ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে ‘পঞ্চম বাংলাদেশ অলিম্পিয়াড ২০২২’ এর জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের যৌথ আয়োজনে দুই দিনব্যাপী জাতীয় অলিম্পিয়াডের উদ্বোধন হয় এদিন। ২০১৮ সাল থেকে বাংলাদেশে রোবট অলিম্পিয়াড আয়োজিত হচ্ছে। এ বছর জাতীয় পর্বে সারাদেশের ৬৪টি জেলা থেকে এক হাজার ২৪ জন প্রতিযোগী নিবন্ধন করেছেন। এ অলিম্পিয়াড আয়োজনের অংশ হিসেবে এ বছর সারাদেশের ৩০০ সংসদীয় আসনে অবস্থিত শেখ রাসেল স্কুল অফ ফিউচার এ অলিম্পিয়াডের অ্যাক্টিভেশন অনুষ্ঠান হয়েছে। আটটি বিভাগীয় শহরের ১০টি শেখ রাসেল স্কুল অফ ফিউচারে অনুষ্ঠিত হয়েছে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা। জুনিয়র এবং চ্যালেঞ্জ- এ দুটি গ্রুপে এ বছর মোট পাঁচটি ক্যাটাগরিতে জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এগুলো হলো- ফিজিক্যাল কম্পিউটিং, ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরি, রোবটিকস কুইজ, রোবট গ্যাদারিং ও রোবট ইন মুভি। জাতীয় পর্বে বিজয়ীদের মধ্য থেকে পরবর্তী সময়ে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ এবং ওয়ার্কশপের মাধ্যমে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরাই ২৪তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে থাইল্যান্ডের ফুকেটে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category