• বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
সর্বোচ্চ আদালতকে পাশ কাটিয়ে সরকার কিছুই করবে না: আইনমন্ত্রী নাইজেরিয়ান চক্রের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কোকেন পাচার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অপেক্ষা করতে বললেন ব্যারিস্টার সুমন পদ্মা সেতুর সুরক্ষায় নদী শাসনে ব্যয় বাড়ছে পিএসসির উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীরসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়েছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার রপ্তানিতে বাংলাদেশ ব্যবহার করছে না রেল ট্রানজিট রাজাকারের পক্ষে স্লোগান সরকারবিরোধী নয়, রাষ্ট্রবিরোধী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি বঙ্গোপসাগরের জীববৈচিত্র্য নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র-আলোকচিত্র প্রদর্শনী

দ্বিতীয়বার মশার লার্ভা পাওয়ায় দুই ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ করলো ডিএনসিসি

Reporter Name / ৬৭ Time View
Update : শনিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বার বার সাবধান করার পরেও দ্বিতীয়বার এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় রাজধানীর উত্তরার দু’টি ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। আজ শনিবার সকালে রাজধানীর উত্তরায় ১১নম্বর সেক্টরে ৫১নম্বরে এ দুটি ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর আগে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ও ‘দশটায় দশ মিনিট প্রতি গতকাল শনিবার নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার’ শিরোনামে ডেঙ্গু সচেতনতা কার্যক্রমে অংশ নেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম। স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে ডিএনসিসি মেয়র কয়েকটি নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করেন। এ সময় দুটি নির্মাণাধীন ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় মেয়রের উপস্থিতিতে অঞ্চল ৬ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরীন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দুটি ভবনকে মোট ছয় লাখ টাকা জরিমানা করে এবং নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেন। রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ও রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) থেকে ভবিষ্যতে এ ভবনে এডিস মশার লার্ভা জন্মাতে দেওয়া হবে না মর্মে অঙ্গিকারনামা জমা না দেওয়া পর্যন্ত নির্মাণকাজ বন্ধ থাকবে বলেও জানান ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরীন। এ সময় ডিএনসিসি মেয়র বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে গেছে। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আমরা মাসব্যাপী কর্মসূচি পরিচালনা করছি। প্রতিটি ওয়ার্ডে ব্যাপক সচেতনতা কার্যক্রম চালাচ্ছি। বার বার সাবধান করা হলেও অনেকে সচেতন হচ্ছেন না। আগেও কয়েক বার এ নির্মাণাধীন ভবনে সাবধান করা হয়েছে। সাবধান করে দেওয়ার পরও তারা ব্যবস্থা নেয়নি। তারপরও দেখছি বেসমেন্টে অসংখ্য লার্ভা। এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। আমরা দুটি ভবনের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছি। লার্ভা পেলে কোনো ছাড় নয়। অভিযান চলমান থাকবে। কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মেয়র বলেন, সামাজিক আনদোলনের মাধ্যমে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সবাইকে সচেতন হতে হবে। জনগণ সহযোগিতা না করলে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না। জনগণের সহযোগিতায় মাত্র ১২ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করতে পেরেছি। অতএব জনগণ চাইলে ডেঙ্গুও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। ছাঁদ বাগানকে আমরা উৎসাহিত করছি। ছাঁদ বাগানের জন্য পুরস্কারও দেবো, কিন্তু নিয়ম মেনে করতে হবে। ছাঁদ বাগানে পানি জমতে দেওয়া যাবে না। সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সচেতনতা কার্যক্রম ও অভিযান পরিচালনার পাশাপাশি আমরা ডেঙ্গুর চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছি। ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতালে ডেঙ্গুর চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ডিএনসিসির ৪৬টি মাতৃসদন কেন্দ্রে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। ডিএনসিসির ৫৪টি ওয়ার্ডে একযোগে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে বিশেষ কর্মসূচি পরিচালনা করা হচ্ছে। পুরো নভেম্বর মাসজুড়ে এ কর্মসূচি চলবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category