• বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৮:৪৬ পূর্বাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
সর্বোচ্চ আদালতকে পাশ কাটিয়ে সরকার কিছুই করবে না: আইনমন্ত্রী নাইজেরিয়ান চক্রের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কোকেন পাচার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অপেক্ষা করতে বললেন ব্যারিস্টার সুমন পদ্মা সেতুর সুরক্ষায় নদী শাসনে ব্যয় বাড়ছে পিএসসির উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীরসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়েছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার রপ্তানিতে বাংলাদেশ ব্যবহার করছে না রেল ট্রানজিট রাজাকারের পক্ষে স্লোগান সরকারবিরোধী নয়, রাষ্ট্রবিরোধী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি বঙ্গোপসাগরের জীববৈচিত্র্য নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র-আলোকচিত্র প্রদর্শনী

ফখরুল সাহেব সুযোগ পেলে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানিয়ে ফেলবেন: তথ্যমন্ত্রী

Reporter Name / ৬০ Time View
Update : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেব তার বক্তব্যের মাঝে স্পষ্ট করেছেন তারা হৃদয়ে পাকিস্তানকে লালন করেন। তারা মনে মনে পাকিস্তানকে লালন করেন এবং সুযোগ পেলে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানিয়ে ফেলবেন। স্বাধীনতার ৫১ বছর পর মির্জা ফখরুল ইসলাম তার বসতভিটায় বসে কীভাবে বলেন, আমরা পাকিস্তান আমলেই ভালো ছিলাম! তার এই বক্তব্য আমাদের মুক্তিযুদ্ধের প্রতি অবমাননা, মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি অবমাননা, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন।’ তিনি আরও বলেন, ‘আজকের সমাবেশের শপথ হচ্ছে, বিএনপি যেহেতু প্রমাণ করেছে তারা স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, তাদের সব জায়গায় প্রতিহত করা হবে।’ আজ বুধবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত ‘বিএনপি মহাসচিবের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র ও রাষ্ট্রদ্রোহী বক্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশ’ শীর্ষক কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন তিনি। তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘যেখানে পাকিস্তান আজকে বলছে বাংলাদেশ তাদের পেছনে ফেলে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। আমরা সমস্ত সূচকে পাকিস্তানকে অতিক্রম করে গেছি। পাকিস্তান আজকে বাংলোদশের দিকে তাকিয়ে হা-হুতাশ করে। ঝড়, বন্যা, জলোচ্ছ্বাসকে অতিক্রম করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সে প্রশংসা পাকিস্তান তো করছেই, সেই সঙ্গে সমস্ত পৃথিবীও করছে। সেখানে দাঁড়িয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব বলেন, পাকিস্তান আমলেই ভালো ছিল! অর্থাৎ আবার পাকিস্তানে ফেরত যেতে চায়। সুতরাং এই কথার মাধ্যমে বিএনপির মহাসচিব প্রমাণ করেছে বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধী। আমরা দেশটাকে স্বাধীনতাবিরোধীেদর হাতে তুলে দিতে পারি না।’ তিনি আরও বলেন, বিএনপি রাজপথে হামলা করছে, মানুষের ওপর হামলা করছে, আর গাড়ি-ঘোড়া ভাঙচুর করছে। মাঝে মধ্যে বলে এবার প্রতিরোধ। এবার বাংলাদেশের মানুষ, সাংস্কৃতিক কর্মীরা একাত্তরে যেভাবে অপশক্তির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিল, আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে স্বাধিকার আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধের সময় যেভাবে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিল, আজ বিএনপি যখন নিজেদের স্বাধীনতাবিরোধী হিসেবে প্রমাণ করেছে, তাদের সব জায়গায় প্রতিরোধ করতে হবে। এ সময় তিনি সব ছাত্র-যুবক জনতার প্রতি স্বাধীনতাবিরোধীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানার সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিলসহ অনেকে। এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের আওয়ামী লীগ নেতারাসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category