• শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
সর্বোচ্চ আদালতকে পাশ কাটিয়ে সরকার কিছুই করবে না: আইনমন্ত্রী নাইজেরিয়ান চক্রের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কোকেন পাচার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অপেক্ষা করতে বললেন ব্যারিস্টার সুমন পদ্মা সেতুর সুরক্ষায় নদী শাসনে ব্যয় বাড়ছে পিএসসির উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীরসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়েছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার রপ্তানিতে বাংলাদেশ ব্যবহার করছে না রেল ট্রানজিট রাজাকারের পক্ষে স্লোগান সরকারবিরোধী নয়, রাষ্ট্রবিরোধী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি বঙ্গোপসাগরের জীববৈচিত্র্য নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র-আলোকচিত্র প্রদর্শনী

বান্দরবানে গরু ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর হত্যার দায়ে পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

Reporter Name / ১১৭ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২

মোঃ জুয়েল হোসাইন :

বান্দরবানে ছোট্ট মিয়া(৪৫) নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে পাঁচজন আসামিকে মৃত্যুদ- ও ১০,০০০/-(দশ হাজার) টাকা জরিমানা এবং অপরাধের সাক্ষ্য-প্রমাণ অপসারণ করায় ০৭ (সাত) বছরের সশ্রম কারাদ- ও ১০,০০০/-(দশ হাজার) টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ০৬(ছয়) মাসের কারাদণ্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১.০০টার দিকে বান্দরবানের জেলা ও দায়রা জজ মো. ফজলে এলাহী ভূইয়া এ রায় দেন। দ-প্রাপ্ত আসামি উচিংনু মার্মা (২২), পিতা-রে অং মার্মা, উবা চিং মার্মা (৩০), পিতা-মংনুমং, চিং নু মং প্রকাশ হদা (২৩), পিতা-থোয়াই চিং মং, মং নু মং প্রকাশ মং নু (৫০), পিতা-মৃত ক্যহ্লা প্রু বান্দরবান সদর উপজেলার লুলাইন হেডম্যান পাড়ার বাসিন্দা। অপর আসামি মং থু প্রকাশ মং ক্যাসিং, পিতা-কুনাক মার্মা একই উপজেলার লুলাইন পুর্নবাসন পাড়ার বাসিন্দা। মামলায় আসামি রে অং মার্মার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। রায় ঘোষণার সময় দ-প্রাপ্ত আসামি চিং নু মং প্রকাশ হদা আদালতে উপস্থিত ছিলেন এবং বাকী আসামিরা পলাতক ছিলেন। জেলা ও দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. কামরুল হাসান জানান, ভিকটিম ছোট্ট মিয়া চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলার দিয়াকুল এলাকার মৃত আনু মিয়ার ছেলে। ভিকটিম গরুর ব্যবসায়ী হওয়ার সুবাদে এজাহার বর্ণিত ১নং আসামি উচিংনু মার্মার নিকট হতে ২ হাজার টাকা বায়না দিয়ে একটি গরু ক্রয় করেন। পরে ভিকটিম ক্রয়কৃত গরু আনার জন্য বাকী টাকা নিয়ে রোয়াংছড়ি উপজেলাধীন হানসামাপাড়া বাজারে যাওয়ার পর নিখোঁজ হন। পরে পুলিশ আসামি উচিংনু মার্মাকে গত ১২ সেপ্টেম্বর ২০০৭ তারিখ সকাল ১০টায় বান্দরবান পৌরসভাস্থ মধ্যমপাড়া হতে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আসামি জানায় সে অপর আসামিগণের সহযোগিতায় দা দিয়ে ভিকটিম ছোট্ট মিয়ার গলা কেটে খুন করে ভিকটিমের মৃতদেহ ৩৪৮নং হ্লাপাইক্ষ্যং মৌজস্থা সারা¤্রাং ঝিরিমুখে জনৈক মংজহ্লী মার্মার বাশবাগানে মাটিচাপা দেন এবং গরু বিক্রয় বাবত পাওনা ১২ হাজার টাকা আত্মসাত করেন। বিগত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০০৭ তারিখ পুলিশ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ আসামি উচিংনু মার্মার বর্ণনামতে ঘটস্থলে গিয়ে মাটি খুড়ে ভিকটিম ছোট্ট মিয়ার গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় একই দিন ভিকটিমের ভাই মো. আমজু মিয়া বাদী হয়ে বান্দরবান সদর থানায় এজাহার দায়ের করলে পুলিশ ২০০৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর এ ঘটনায় উসিংনু মার্মা, উবা চিং মার্মা, রে অং মার্মা, চিং নু মং প্রকাশ হদা, মং নু মং প্রকাশ মং নু এবং মং থু প্রকাশ মং ক্যাসিংকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দাখিল করেন। আদালত রাষ্ট্রপক্ষের ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণের পর এ রায় দেন। মামলার বাদী মো. আমজু মিয়া রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। অপরদিকে, জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মো. ইকবাল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আসামি ১) উসিংনু মার্মা, ২) উবা চিং মার্মা, ৪) চিং নু মং প্রকাশ হদা, ৪) মং নু মং প্রকাশ মং নু ও ৫) মং থু প্রকাশ মং ক্যাসিং গরু বিক্রয়ের কথা বলে ভিকটিমকে ঘটনাস্থলে নিয়ে বিক্রয়কৃত গরু না দিয়ে ভিকটিমের নিকট হতে ১২ হাজার টাকা আত্মসাতের জন্য ভিকটিমকে অপহরণ করে গলা কেটে খুন করে। এ ঘটনায় দায়রেকৃত মামলায় সাক্ষ্য-প্রমাণে বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। আদালতের বিচারক আসামিগণকে দ-বিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্থ করে প্রত্যেককে মৃত্যুদ- ও ১০,০০০/-(দশ হাজার) টাকা জরিমানা এবং দ-বিধির ২০১ ধারায় দোষী সাব্যস্থ করে প্রত্যেককে ০৭ (সাত) বছরের সশ্রম কারাদ- ও ১০,০০০/-(দশ হাজার) টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ০৬(ছয়) মাসের কারাদ-াদেশ দেন। আদালতে উপস্থিত আসামি চিং নু মং প্রকাশ হদাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category