• বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৪ অপরাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
সর্বোচ্চ আদালতকে পাশ কাটিয়ে সরকার কিছুই করবে না: আইনমন্ত্রী নাইজেরিয়ান চক্রের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কোকেন পাচার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অপেক্ষা করতে বললেন ব্যারিস্টার সুমন পদ্মা সেতুর সুরক্ষায় নদী শাসনে ব্যয় বাড়ছে পিএসসির উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীরসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়েছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার রপ্তানিতে বাংলাদেশ ব্যবহার করছে না রেল ট্রানজিট রাজাকারের পক্ষে স্লোগান সরকারবিরোধী নয়, রাষ্ট্রবিরোধী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি বঙ্গোপসাগরের জীববৈচিত্র্য নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র-আলোকচিত্র প্রদর্শনী

মেসি-রোনালদো-নেইমার ফিফা বর্ষসেরার লড়াইয়ে

Reporter Name / ৩৮৫ Time View
Update : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক :
কোপা আমেরিকা জিতে আর্জেন্টিনার ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর নায়ক লিওনেল মেসি স্বাভাবিকভাবেই আছেন ফিফা বর্ষসেরার লড়াইয়ে। তার সঙ্গে প্রত্যাশিতভাবে আছেন তার সবসময়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। লড়াইয়ে আছেন বর্তমানের আরেক সেরা বিবেচিত নেইমারও। ২০২১ সালের ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ নির্বাচনে সোমবার নিজেদের ওয়েবসাইটে ১১ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থাটি। সম্ভাবনার দৌড়ে আছেন ইতালির হয়ে ইউরো ও চেলসির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী জর্জিনিয়ো, গোলমেশিন রবের্ত লেভানদোভস্কি, কিলিয়ান এমবাপে ও করিম বেনজেমার মতো তারকারা। ২০২০ সালের ৮ অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের ৭ অগাস্ট পর্যন্ত সময়ের মধ্যে পারফরম্যান্সের বিচারে ফিফার একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল এই তালিকা তৈরি করেছে। সম্ভাবনার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে মেসি। বার্সেলোনার হয়ে বিদায়ী মৌসুমটা তেমন ভালো না কাটলেও ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে তিনি বরাবরের মতোই ছিলেন উজ্জ্বল। লা লিগায় সর্বোচ্চ ৩০ গোল করে রেকর্ড অষ্টমবারের মতো জেতেন পিচিচি ট্রফি। আর কোপা দেল রের ফাইনালে আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ৪-০ ব্যবধানে জয়ে জোড়া গোল করেন তিনি। জাতীয় দলে মেসি আপন আলোয় উদ্ভাসিত ছিলেন। গত জুলাইয়ে ব্রাজিলকে তাদের মাঠেই হারিয়ে আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা জয়ে নেতৃত্ব দেন তিনি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশের ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর মিশনে চার গোল করে ও পাঁচটি করিয়ে নেতৃত্ব দেন সামনে থেকে। এর আগে রেকর্ড ছয়বার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছেন মেসি। গত অগাস্টে পিএসজিতে পাড়ি জমানো এই মহাতারকার সেরা হওয়ার সংখ্যাটা এবার সাত হওয়ার জোর সম্ভাবনা দেখছেন অনেকেই। দলীয় খুব বড় কোনো সাফল্য না থাকলেও ব্যক্তিগত অর্জনে বছরটা দুর্দান্ত কেটেছে রোনালদোর। ইউভেন্তুসের হয়ে ২০২০-২১ সেরি আয় সর্বোচ্চ ২৯ গোল করেন তিনি। গড়েন প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা ও সেরি আয় আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড। এই সময়ে দলটির হয়ে ইটালিয়ান কাপ ও ইটালিয়ান সুপার কাপও জেতেন তিনি। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে গিয়েও দারুণ কয়েকটি রেকর্ড গড়েন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার রোনালদো। পর্তুগাল শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিলেও তার আগেই আসরের সর্বোচ্চ পাঁচটি গোল করে আন্তর্জাতিক ফুটবলে আগের রেকর্ড গোলদাতা আলি দাইকে স্পর্শ করেন রোনালদো। এরইমধ্যে রেকর্ডটি নিজেরও করে নিয়েছেন বর্তমানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলা সিআর-সেভেন, যদিও তা বিবেচিত সময়ের বাইরে। ক্লাব পিএসজির হয়ে গত মৌসুমটা হতাশায়ই শেষ হয় নেইমারের। শক্তিতে অনেক পিছিয়ে থাকা লিলের কাছে লিগ ওয়ান শিরোপা হারায় তারা। তবে জাতীয় দলের হয়ে সময়টা বেশ কেটেছে তার। কোপা আমেরিকার ফাইনালে হেরে শিরোপা স্বপ্ন ভাঙলেও আসর জুড়ে তার পারফরম্যান্স ছিল দারুণ। মেসির সঙ্গে যৌথভাবে টুর্নামেন্টের সেরার খেলোয়াড়ের পুরুস্কার জেতেন তিনি। দলগত সাফল্যের বিচারে অবশ্য তাদের সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন জর্জিনিয়ো। অনেকটা অন্তরালে থেকে যেন আচমকাই পাদপ্রদীপের আলোয় উঠে এসেছেন এই মিডফিল্ডার। গত বছরের শেষভাগে ভুগতে থাকা চেলসির নাটকীয়ভাবে ঘুরে দাঁড়ানোয় তার ভূমিকা ছিল অসামান্য। টমাস টুখেলের কোচিংয়ে পাল্টে যাওয়া দলটি প্রিমিয়ার লিগ শেষ করে শীর্ষ চারে থেকে। পরে চমক জাগিয়ে সিটিকে হারিয়ে জিতে নেয় ইউরোপ সেরার ট্রফি। এরপর ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় ইতালি, সেখানেও মাঝমাঠে তার নেতৃত্ব তুমুল প্রশংসিত হয়। ২০২০-২১ মৌসুমের উয়েফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন জর্জিনিয়ো। ফিফা বর্ষসেরার মুকুটও তার মাথায় উঠলে অবাক হওয়ার মতো কিছু হবে না। অনেকের চোখে লেভানদোভস্কিও এবার বর্ষসেরা হওয়ার সমান দাবিদার। জাতীয় দলের হয়ে পোলিশ তারকার তেমন কোনো অর্জন না থাকলেও ক্লাবে দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছেন তিনি। বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে গত মৌসুমে বুন্ডেসলিগায় সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েন ২০২০ সালের ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার জয়ী এই তারকা। একই সঙ্গে নারী ফুটবলের বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারের লড়াইয়ে জায়গা পাওয়া ১৩ জনের নাম প্রকাশ করেছে ফিফা। আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার ওয়েবসাইটে ভোট দিতে পারবেন ফুটবলপ্রেমীরা। জানুয়ারির শুরুতে এর মধ্য থেকে তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। আর আগামী ১৭ জানুয়ারি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।
১১ জনের তালিকা:
করিম বেনজেমা (ফ্রান্স/রিয়াল মাদ্রিদ)
কেভিন ডে ব্রুইনে (বেলজিয়াম/ম্যানচেস্টার সিটি)
ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল/ইউভেন্তুস/ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড)
আর্লিং হলান্ড (নরওয়ে/বরুশিয়া ডর্টমুন্ড)
জর্জিনিয়ো (ইতালি/চেলসি)
এনগোলো কঁতে (ফ্রান্স/চেলসি)
রবের্ত লেভানদোভস্কি (পোল্যান্ড/বায়ার্ন মিউনিখ)
কিলিয়ান এমবাপে (ফ্রান্স/পিএসজি)
লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা/বার্সেলোনা/পিএসজি)
নেইমার (ব্রাজিল/পিএসজি)
মোহামেদ সালাহ (মিশর/লিভারপুল)


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category