• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
কৃষি জমির মাটি কাটার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেড় বছরেও চালু হয়নি বিশেষায়িত শিশু হাসপাতালের কার্যক্রম শ্রম আইন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র টালবাহানা করছে: প্রতিমন্ত্রী কারিগরির সনদ বাণিজ্য: জিজ্ঞাসাবাদে দায় এড়ানোর চেষ্টা সাবেক চেয়ারম্যানের বাংলাদেশ থেকে আরও কর্মী নিতে কাতারের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির ফরিদপুরে ১৫ জনের মৃত্যু: অপেশাদার লাইসেন্সে ১৩ বছর ধরে বাস চালাচ্ছিলেন চালক বেনজীরের দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধানের অগ্রগতি প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট পাট পণ্যের উন্নয়ন ও বিপণনে সমন্বিত পথনকশা প্রণয়ন করা হবে: পাটমন্ত্রী কক্সবাজারে অপহরণের ২৬ ঘণ্টা পর পল্লী চিকিৎসক মুক্ত বান্দরবানের তিন উপজেলায় ভোট স্থগিত : ইসি সচিব

সব বিশ্ববিদ্যালয়কে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

Reporter Name / ৫৪ Time View
Update : শুক্রবার, ৪ নভেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সব বিশ্ববিদ্যালয়কে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ভর্তি পরীক্ষায় পাঁচ-সাতটি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া দেশের অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে এসেছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অর্থ সাশ্রয়, তাদের ভোগান্তি কমাতে এটি প্রয়োজন। তিনি বলেন, আমরা পাশ্চাত্যের বিভিন্ন দেশের দিকে তাকিয়ে থাকি। আমাদের এখান থেকে পাস করে ভালো মেধাবীরা সেসব দেশে পড়তে যান, গবেষণা করতে যান, শিক্ষকতা করতে যান। ওইসব দেশে একটি মাত্র পরীক্ষা দিয়ে হার্ভার্ড, এমআইটিতে (ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি) ভর্তি হওয়া যায়। তাহলে কেন আমাদের দেশে একটি পরীক্ষা দিয়ে সব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া যাবে না? আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী। মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা বলছি শিক্ষা হবে এখন জীবনমুখী। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় দেশের জনগণের টাকায় চলে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার দেওয়ালগুলো তুলে দিতে হবে। যেকোনো বয়সে, যেকোনো মানুষের শিক্ষার অধিকার আছে। তিনি কিন্তু পরীক্ষা দিয়েই তার যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখেই এখানে পড়তে আসবেন। তার বয়স কুড়ি না পঞ্চাশ সেটিতো বিবেচ্য বিষয় হওয়া উচিত নয়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর র্যাংকিং প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অনেকে বলেন আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বিশ্ব র্যাংকিংয়ে এত পিছিয়ে আছে কেন? আবার কেউ কেউ বলেন আমরা র্যাংকিংয়ের ধার ধারি না। এর কোনোটাই বোধ হয় সঠিক অ্যাপ্রোচ নয়। আমাদের র্যাংকিংয়ে বোধহয় সেখানেও যাওয়া উচিত। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাবি উপাচার্য অধ্যাপক মো. নূরূল আলম বলেন, বিশ্বসেরা দুই শতাংশ বিজ্ঞানীর তালিকায় আমাদের পাঁচজন শিক্ষক ও একজন ছাত্রের নাম এসেছে। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের। শিক্ষার্থীদের কষ্টের কথা বিবেচনা করে আমরা এই মাসেই নতুন হলের উদ্বোধন করবো। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আর ‘গণরুম’ শব্দটি থাকবে না। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, পদার্থবিজ্ঞানী অধ্যাপক এ এ মামুন, গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদের ডিন অধ্যাপক ফরিদ আহমদ, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক তাহমিনা ফেরদৌস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category