• মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
অগ্নিকা- প্রতিরোধে পদক্ষেপ পর্যালোচনায় বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন হাইকোর্টের রমজানে পণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার সুযোগ নেই: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ১০ মার্চের মধ্যে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল পাবে ৫০ লাখ পরিবার: খাদ্যমন্ত্রী বীজে অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ডিসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী ধানম-ির টুইন পিক টাওয়ারের ১২ রেস্তোরাঁ সিলগালা বান্দরবানে সাংবাদিকদের ২ দিন ব্যাপী আলোকচিত্র ও ভিডিওগ্রাফি প্রশিক্ষণ মজুদদারির বিরুদ্ধে ডিসিদের কঠোর হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযানে ডিসিদের সহায়তা চাইলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদে অনির্বাচিত কেউ আসতে পারে না : স্পিকার ইসলামি শিক্ষা কেন্দ্রে মাওলানা আব্দুলাহ আনোয়ার আটক

অনিয়মের দায়ে ডিএসসিসি’র সহকারী প্রকৌশলী চাকরিচ্যুত

Reporter Name / ১০৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১ মার্চ, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রায় ১২ কোটি টাকা আর্থিক অনিয়ম ও দুর্নীতির দায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী (পুর) আ হ ম আব্দুল্লা হারুনকে চাকরি হতে অপসারণ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সংস্থার মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস সই করা এক অফিস আদেশে তাকে চাকরি হতে অপসারণ করা হয়। অফিস আদেশে বলা হয়েছে, আ হ ম আব্দুল্লাহ হারুন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী (পুর) ও নিজ দায়িত্বসহ একই বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাজ চালিয়ে নেন। এ দায়িত্বে থাকাকালে অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী কাজ না করে ভৌতিক এবং অতিরিক্ত বিল পরিশোধ করে ডিএসসিসি আর্থিক ক্ষতিসাধন করেছেন। এ ছাড়া তিনি বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর দায়িত্বে থাকাকালীন পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের ডিপোজিট ওয়ার্কের আওতায় কমলাপুর টিটিপাড়া থেকে দক্ষিণ কদমতলী পর্যন্ত ছয় কিলোমিটার রেললাইনের দুই পাশে জমানো বর্জ্য, মাটি ও রাবিশ অপসারণ এবং ডাম্পিং করার কাজটিকে তিন গ্রুপে ভাগ করে ২৮ কোটি টাকার টেন্ডার আহ্বান করেন। আহ্বান করা দরপত্রে বিভিন্ন অনিয়ম এবং কাজের পরিধি ও নির্ধারিত ব্যয়ের মাঝে বিস্তর অসামঞ্জস্যতা পরিলক্ষিত হয়। মোট বর্জ্য, মাটি ও রাবিশ ধরা হয়েছে ১ লাখ ২০ হাজার টন। যার মধ্যে বর্জ্যরে পরিমাণ হবে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টন। অবশিষ্ট ১ লাখ ১৫ হাজার টন হবে মাটি ও রাবিশ যা বিক্রয়যোগ্য। অথচ মাটি ও রাবিশ ডাম্পিং বাবদ দরপত্রে ব্যয় ধরা হয়েছে ১১ কোটি ৮৮ লখ টাকা। প্রকৃতপক্ষে মাটি ও রাবিশ বিক্রয়যোগ্য হওয়ায় এ ক্ষেত্রে সরকারের কোনও অর্থ ব্যয় হওয়ার কথা নয়। দরপত্রের মাধ্যমে সংঘটিত অনিয়ম বিষয়ে দৈনিক পত্রপত্রিকায়ও নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এই কর্মকর্তা বিভিন্ন সময় অনিয়ম, দুর্নীতি এবং করপোরেশন ও জনস্বার্থবিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হয়েছেন উল্লেখ করে আদেশে বলা হয়, ‘তার এমন কর্মকা-ের ফলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আর্থিক ক্ষতিসাধিত হয়েছে এবং ভাবমূর্তি ও সুনাম ক্ষুন্ণ হয়েছে। তাকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্মচারী চাকরি বিধি অনুসারে জনস্বার্থ ও করপোরেশনের স্বার্থ রক্ষার্থে চাকরি হতে অপসারণ করা হলো। এতে আরও বলা হয় তিনি বিধি মোতাবেক ৯০ দিনের বেতন প্রাপ্য হবেন। তাকে এ করপোরেশনের হিসাব বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে সকল দেনা-পাওনা বুঝে নেওয়ার নির্দেশ প্রদান করা হলো। জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করা হলো এবং অবিলম্বে তা কার্যকর হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category