• বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
আইনের অবস্থান থেকে সরকারের আর কিছু করার নেই: আইনমন্ত্রী তীব্র শিক্ষক সঙ্কট নিয়েই চলছে সরকারি মেডিকেল কলেজগুলো রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সুইজারল্যান্ডের সহযোগিতা চেয়েছেন স্পিকার একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিসহ ৮ দাবি প্রাথমিকের শিক্ষকদের স্বামীর স্থায়ী ঠিকানায় বদলির আদেশ বহাল দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার রোধে প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোয়াংছড়ি উপজেলার কুকি চীন সন্ত্রাসী বাহিনীরা রাস্তার ক্ষয়ক্ষতির গ্রস্তে সেনা পরিদর্শন করেন ১৬ আন্তঃনগর ট্রেনে যুক্ত হলো পণ্যবাহী নতুন লাগেজ ভ্যান জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের যৌথ পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলকে আর ঢাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না: মেয়র তাপস

খালেদা জিয়া কখনোই মুক্তিযোদ্ধা হতে পারেন না: মোজাম্মেল

Reporter Name / ৬১ Time View
Update : শনিবার, ১ জানুয়ারি, ২০২২

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মুক্তিযুদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ১৯৭১ সালে জিয়াউর রহমান খালেদা জিয়াকে ভারতে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নিয়ে যাওয়ার জন্য লোক পাঠালেও তিনি স্বেচ্ছায় ক্যান্টমেন্টে থেকে যান। তাই তিনি কখনও মুক্তিযোদ্ধা হতে পারেন না। কিন্তু তিনি যেতে অস্বীকার করেন। শুধু তাই নয়, জিয়াউর রহমান বলেছিলেন যুদ্ধকালীন সময়ে এলাকায় থাকা নিরাপদ নয়, তাই ভারতে চলে যাওয়াই ভাল। সে কথা না শুনে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য ক্যান্টমেন্টে অবস্থান নিয়েছিলেন খালেদা। স্বেচ্ছায় যারা ক্যান্টমেন্টে অবস্থান নিয়েছিলেন, তারা কখনোই মুক্তিযোদ্ধা হতে পারে না। গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার পৌর শহরের শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশকে খুনি মুশতাক ও জিয়া পিছিয়ে দিতে চেয়েছিল। ইসলামের অপব্যবহার করা হয়, ভাওতা দেয়। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকার সময় বাংলাদেশ দুর্নীতিতে চারবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তাদের কাছে এতিমের টাকাও নিরাপদ নয়। সেই অপরাধে জেল খাটছে উনি। কিন্তু তাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, বিএনপি জামাতায়সহ অন্য দলগুলোর নেতারা ক্ষমতায় ছিল ২৯ বছর। সেই সময় তারা দেশের কোনো উন্নতি করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে দেশ নিরাপদ। আমরা ক্ষমতায় আসার পর কী পরিমাণে উন্নয়ন হয়েছে তা একটু চারিদিকে তাকালেই বুঝতে পারবেন। সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চার তলা বিশিষ্ট দৃষ্টিনন্দন ভবন করে দিয়েছে। চারদিকে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। এই সরকার আরও ক্ষমতায় থাকলে দেশের আরও উন্নতি হবে। তিনি বলেন, আমি যখন মন্ত্রী হই তখন মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ছিল মাত্র ৩ হাজার টাকা। সেটা এখন বাড়িয়ে ২০ হাজার টাকায় উন্নীত হয়েছে। দেশের সব বধ্যভূমিকে সংরক্ষণ করা হবে। মুক্তিযোদ্ধাদের কবর সংরক্ষণ করা হবে। যাতে ৫০ বছর পর কেউ দেখলে বোঝতে পারে এটা মুক্তিযোদ্ধার কবর। আপনারা যেহেতু অভিযোগ করেছেন তাই রাজাকারদেরও তালিকা করা হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে কাজ করব। জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সহ-সভাপতি রশিদ আহমদের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ-৫ আসনের এমপি মহিবুর রহমান মানিক, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মতিউর রহমান, সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব, সুনামগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত মহিলা এমপি শামীমা শাহরিয়ার, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, ছাতক উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, ছাতক পৌর আ.লীগের আ.লীগের আহ্বায়ক আবদুল ওয়াহিদ মজনু, সুনামগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার নূরুল মোমেন প্রমুখ। এর আগে গতকাল শুক্রবার সকালে মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক ছাতকে নব নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের শুভ উদ্বোধন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category