• মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
অগ্নিকা- প্রতিরোধে পদক্ষেপ পর্যালোচনায় বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন হাইকোর্টের রমজানে পণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার সুযোগ নেই: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী ১০ মার্চের মধ্যে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল পাবে ৫০ লাখ পরিবার: খাদ্যমন্ত্রী বীজে অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ডিসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী ধানম-ির টুইন পিক টাওয়ারের ১২ রেস্তোরাঁ সিলগালা বান্দরবানে সাংবাদিকদের ২ দিন ব্যাপী আলোকচিত্র ও ভিডিওগ্রাফি প্রশিক্ষণ মজুদদারির বিরুদ্ধে ডিসিদের কঠোর হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযানে ডিসিদের সহায়তা চাইলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদে অনির্বাচিত কেউ আসতে পারে না : স্পিকার ইসলামি শিক্ষা কেন্দ্রে মাওলানা আব্দুলাহ আনোয়ার আটক

চট্টগ্রাম বন্দরের ২০ কিলোমিটারের মধ্যে বেসরকারি আইসিডি স্থাপন করা যাবে না

Reporter Name / ৭৭ Time View
Update : রবিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চট্টগ্রাম বন্দরের ওপর চাপ কমাতেই বেসরকারি খাতে আইসিডি স্থাপন ও পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু এখন থেকে চট্টগ্রাম বন্দর এলাকার ২০ কিলোমিটারের মধ্যে আর কোনো নতুন বেসরকারি অভ্যন্তরীণ কনটেইনার টার্মিনাল (আইসিডি) স্থাপন করা যাবে না। আর বন্দরের ২০ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে স্থাপিত পুরোনো আইসিডিগুলো পর্যায়ক্রমে সরিয়ে নেয়ার পদক্ষেপ নেয়া হবে। বিগত ১৯৮৫ সালে চট্টগ্রামে বেসরকারি উদ্যোগে প্রথম আইসিডি স্থাপিত হয়েছিল। আর ১৯৯৮ সালে এনবিআরের একটি অফিস আদেশের আওতায় আইসিডিগুলো তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। তারপর ২০১৬ সালে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় ওই সংক্রান্ত একটি নীতিমালা প্রণয়ন করে। বর্তমানে কর্মরত ১৯টি আইসিডির মধ্যে ৩টি বন্দরের ২০কিলোমিটারের বাইরে রয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, এনবিআরের নতুন এক নীতিমালার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রস্তাবিত আইসিডি বন্দর এলাকা থেকে অন্তত ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত হতে হবে। ফলে চট্টগ্রাম মহানগরীর ভেতরে জনবহুল এলাকায় আর বেসরকারি আইসিডি করা যাবে না। তাতে নগরীর অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোতে ভারি যানবাহনের চাপ কমার পাশাপাশি যানজটও কমবে। বন্দর ব্যবহারকারীরাও এনবিআরের এমন সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট। তারা এনবিআরের নতুন সিদ্ধান্তকে সময়োপযোগী বলে অভিহিত করেছে।
সূত্র জানায়, বর্তমানে চট্টগ্রাম বন্দরকে কেন্দ্র করে ১৯টি বেসরকারি আইসিডি গড়ে উঠেছে। যার বেশিরভাগই বন্দরের ২০ কিলোমিটারের মধ্যে অবস্থিত। আইসিডিগুলোতে আমদানি, রপ্তানি ও খালি কনটেইনার হ্যান্ডলিং করা হয়। রপ্তানি পণ্যের প্রায় শতভাগ এবং আমদানি পণ্যের ২৫ শতাংশ আইসিডিগুলোর মাধ্যমে হ্যান্ডলিং হয়। ১৯টি বেসরকারি আইসিডির সম্মিলিত কনটেইনার ধারণক্ষমতা ৭৮ হাজার ৭০০ টিইইউএস (২০ ফুট দৈর্ঘ্যের সমান)। রপ্তানি পণ্য ট্রাক বা কাভার্ড ভ্যানযোগে এনে আইসিডিতে কনটেইনার বোঝাই করা হয়। ইতিপূর্বে কাজটি বন্দরের ভেতরে করা হতো। তাতে বন্দরের ভেতরে প্রায়ই কনটেইনার জট লেগে থাকতো। আইসিডিতে পণ্য বোঝাইয়ের পর ট্রেইলারে তুলে কনটেইনারগুলো বন্দরে নিয়ে জাহাজীকরণ করা হয়। একইভাবে ৩৭ ধরনের আমদানি পণ্য বন্দর থেকে এনে আইসিডিতে রাখা হয়। পরে সুবিধাজনক সময়ে আমদানিকারকরা এগুলো ডেলিভারি (সরবরাহ) নেয়।
সূত্র আরো জানায়, আইসিডিগুলোর বেশিরভাগই বন্দরের ২০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকার কারণে প্রতিদিন শত শত ভারি যানবাহন নগরীর জনবহুল এলাকার অভ্যন্তরীন সড়কগুলো ব্যবহার করে পণ্য আনা-নেয়া করে থাকে। তাতে অতিরিক্ত চাপের কারণে তুলনামূলক কম সময়ের মধ্যে সড়কগুলো নষ্ট হয়ে যায় বলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে। তাছাড়া আইসিডির আশপাশের সড়কগুলোতে প্রায় সারাদিনই যানজট লেগে থাকে। সেজন্যই চসিকসহ বিভিন্ন পক্ষ আইসিডিগুলো বন্দরের ২০ কিলোমিটারের বাইরে নিয়ে যাওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে। বিষয়টি নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর উপদেষ্টা কমিটির একাধিক বৈঠকে আলোচনা হলেও কোনো সুরাহা হয়নি। অবশেষে এনবিআর এ সংক্রান্ত নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করেছে।
এদিকে বন্দর ব্যবহারকারীরা এনবিআরের নতুন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। তাদের মতে, শহরের মধ্যে আইসিডি হওয়ায় অনেক ধরনের সমস্যা হচ্ছিল। অনেক ক্ষেত্রেই পণ্য ওঠানো-নামানো কঠিন হয়ে পড়তো। পাশাপাশি যানজটে নাগরিকদের চলাচলেও সমস্যা হয়। আশা করা যায় পুরোনো আইসিডিগুলোও নতুন নীতিমালার আলোকে ধীরে ধীরে নগরী থেকে সরিয়ে নেয়া হবে।
অন্যদিকে এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজের কমিশনার ফখরুল আলম জানান, নতুন নীতিমালা অনুযায়ী আইসিডি করতে হলের বন্দর এলাকার ২০ কিলোমিটারের বাইরে যেতে হবে। আর পুরোনো আইসিডিগুলোর বিষয়ে সরকারের নীতি হচ্ছে সেগুলোকে পর্যায়ক্রমে সরিয়ে নিতে হবে। তবে ওই কাজ রাতারাতি সম্ভব নয়। কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করে একেকটা স্থাপনা বানানো হয়েছে। আর একটা স্থাপনা বাইরে সরিয়ে নিতে হলে জমি লাগবে, তারপর সেখানে আইসিডি স্থাপন করতে হবে। সেজন্য কিছুটা সময়ের প্রয়োজন। আইসিডি মালিকদের তা জানানো হয়েছে। তবে তাদেরকেও হয়তো পর্যায়ক্রমে স্থাপনা সরিয়ে নিতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category