• শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
ঈদযাত্রায় বাড়তি ভাড়া আদায় করলে ব্যবস্থা বেনজীরের অঢেল সম্পদে হতবাক হাইকোর্ট তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুয়েক সময় আমাদের ট্রলার-টহল বোটে মিয়ানমারের গুলি লেগেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম-নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান রাষ্ট্রপতির সহকর্মীকে হত্যাকারী কনস্টেবল মানসিক ভারসাম্যহীন দাবি পরিবারের বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী চেকিংয়ের জন্য গাড়ি থামানো চাঁদাবাজির অংশ নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সারা দেশে ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা কতজন জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট বান্দরবান থেকে কেএনএফের ৩১ জনকে পাঠানো হলো চট্টগ্রাম কারাগারে

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রোসাটমের মহাপরিচালকের সাক্ষাৎ

Reporter Name / ৩৯০ Time View
Update : সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :
রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি করপোরেশন রোসাটমের মহাপরিচালক আলেক্সি লিখাচেভ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। রোসাটম এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বৈঠকে রোসাটম ও বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক কৌশলগত সহযোগিতার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আলেক্সি লিখাচেভ গত রোববার এক সংক্ষিপ্ত সফরে বাংলাদেশ সফরে আসেন। রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটে রিঅ্যারক্টর প্রেসার ভেসেল (আরপিভি) স্থাপন উপলক্ষে রোসাটম মহাপরিচালক বাংলাদেশ সফর করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আলেক্সি লিখাচেভ গত রোববার সকালে যৌথভাবে রিঅ্যাক্টর প্রেসার ভেসেল স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের দিনটি আমাদের জন্য গর্বের ও আনন্দের। যেহেতু রূপপুর প্রকল্পের প্রথম ইউনিটের রিঅ্যাক্টর প্রেসার ভেসেল স্থাপিত হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে বিশ্বে পরমাণু প্রযুক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমরা আমাদের স্থান নিশ্চিত করতে পেরেছি। তিনি আরো বলেন, ২০১৩ সালে প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে বৈঠককালে নিরাপত্তা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়গুলোতে আশ্বস্ত হবার পরই আমি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেই। শেখ হাসিনা আরও বলেন, যেহেতু এই প্রযুক্তিতে (পরমাণু) কার্বন নিঃসরণ হয় না, তাই এটি পরিবেশবান্ধব এবং জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকারক প্রভাব রোধে সহায়ক হবে। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি আমাদের উন্নয়ন পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০৩০ সাল নাগাদ এসডিজি লক্ষ্যসমূহ অর্জনে সহায়তা করবে এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশ হিসেবে উত্তরণে ভূমিকা রাখবে। অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে আলেক্সি লিখাচেভ রিয়্যাক্টর প্রেসার ভেসেল স্থাপনের তাৎপর্য তুলে ধরেন। বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞদের সুসমন্বিত কাজের বিষয়টির ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি। আলেক্সি লিখাচেভ আরও বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে রাশিয়ার অনুসৃত শ্রেষ্ঠ বিষয়গুলো, বহু দশক ধরে অর্জিত অভিজ্ঞতা এবং বৈজ্ঞানিক ভাবনার সমন্বয় ঘটেছে। সক্রিয় এবং স্বয়ংক্রিয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা ব্যবহারের ফলে রূপপুরের বিদ্যুৎ ইউনিটগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে নির্ধাতিত লক্ষ্য অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদন নিশ্চিত হবে। পাবনার রূপপুরে রাশিয়ার কারিগরি এবং আর্থিক সহযোগিতায় প্রথম বারের মতো পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করছে বাংলাদেশ। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি করপোরেশন রোসাটম বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণে সহযোগিতা করছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category