• বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
এএসপি আনিস হত্যা মামলায় বাবার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই: শেখ হাসিনা আগামী বাজেটে মূল্যস্ফীতি রোধে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে: অর্থ প্রতিমন্ত্রী অ্যামাজন-শেভরন-বোয়িং বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী অবৈধ সম্পদ অর্জন: স্ত্রীসহ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা জলবায়ুর ঝুঁকি মোকাবেলা আন্তর্জাতিক সহায়তার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বেনজীর-আজিজকে সরকার প্রটেকশন দেবে না: সালমান এফ রহমান ভিকারুননিসায় যমজ বোনকে ভর্তির নির্দেশ হাইকোর্টের এবারও ধরাছোঁয়ার বাইরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটি পটুয়াখালীর দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

রূপপুর প্রকল্প বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান বদলে দেবে: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী

Reporter Name / ২৭৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ড. ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের মর্যাদা বেড়ে যাবে, বদলে যাবে বিশ্বে আমাদের দেশের অবস্থান। তিনি বলেন, আমাদের যাত্রা মধ্য গগনে। তা পূর্ণ করতে হবে। যেদিন আমরা বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালাতে পারব, সেদিন থেকে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কারণে বাংলাদেশ একটা অনন্য মর্যাদায় গিয়ে পৃথিবীর সামনে দাঁড়াবে। গতকাল মঙ্গলবার ঈশ্বরদী রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে নিউক্লিয়ার ডে-২০২১ উদযাপন উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ড. ইয়াফেস ওসমান বলেন, আমরা অলসতা বাদ দিয়ে যেভাবে কাজ করছি, আমরা এগিয়ে যাব। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প কেবলমাত্র একটি বেশি দামের প্রকল্প না, রূপপুর প্রকল্প নির্মিত হলে বাংলাদেশ একটি ভিন্ন মর্যাদায় উঠে যাবে, এ ধরনের উন্নত টেকনোলজি নিয়ে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে। এ কারণে সারা পৃথিবীতে বাঙালির অবস্থান বদলে যাবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন, এ প্রকল্প এখানে হোক। পিতা থেকে কন্যার হাতে এসে এ প্রকল্প সমাপ্ত করতে পারব। স্বাধীনতা পেয়েছি বলেই আজ নিজেরা নিজেদের চেষ্টায় সারা পৃথিবীর কাছে নিজেদের স্থান করে নিতে পেরেছি। বাংলাদেশ ৩৩তম দেশ, যারা নিউক্লিয়ার নিয়ে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে। প্রকল্পে কর্মরত প্রকৌশলীদের উদ্দেশে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ড. ইয়াফেস ওসমান বলেন, তোমরা দ্বিতীয় সারির মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধ করে আমরা একটি দেশকে স্বাধীন করে একটি পর্যায়ে নিয়ে আসতে পেরেছি। আমরা যখন যুদ্ধ করেছি, তখন মনে হতো, আমরা মনে হয় বাঁচব না। আমাদের জীবন আমরা ত্যাগ করে যাব, আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তোমরা বাংলাদেশকে একটি ভিন্ন পর্যায়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এ কারণে তোমরা দ্বিতীয় সারির মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধ একবার হয় স্বাধীনতার জন্য। কিন্তু যেগুলো অবস্থান পরিবর্তনের জন্য হয়, সেটাও যুদ্ধ। সেই যুদ্ধে যারা সুযোগ পেয়েছ, তারা সৌভাগ্যবান। তার আগে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে নিউক্লিয়ার ডে-২০২১ এর শুভ উদ্বোধন করা হয়। পরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্পের ভাইস প্রেসিডেন্ট এলেক্সডেইরি প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর, প্রকল্পের সাইট পরিচালক আশরাফুল ইসলাম, প্রকল্পের সাইট অফিস ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস, পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) ফিরোজ কবীর, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরুল কায়েস, ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ কিরণসহ স্থানীয় সংবাদকর্মী ও রূপপুর প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category