• বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
সর্বোচ্চ আদালতকে পাশ কাটিয়ে সরকার কিছুই করবে না: আইনমন্ত্রী নাইজেরিয়ান চক্রের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কোকেন পাচার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অপেক্ষা করতে বললেন ব্যারিস্টার সুমন পদ্মা সেতুর সুরক্ষায় নদী শাসনে ব্যয় বাড়ছে পিএসসির উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীরসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানি পিছিয়েছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার রপ্তানিতে বাংলাদেশ ব্যবহার করছে না রেল ট্রানজিট রাজাকারের পক্ষে স্লোগান সরকারবিরোধী নয়, রাষ্ট্রবিরোধী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি বঙ্গোপসাগরের জীববৈচিত্র্য নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র-আলোকচিত্র প্রদর্শনী

শ্রীপুরে নিউ এশিয়া ক্লিনিকের প্রতারণা শুরু, নকল ডাক্তারেই বাজিমাত

Reporter Name / ৪৯৪ Time View
Update : সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

হাজী মুছা, গাজীপুর প্রতিনিধি :
পরিবেশ অধিদপ্তরের অবস্থানগত ছাড়পত্র না নিয়ে অনুপোযুক্ত পরিবেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিবন্ধন এবং ছাড়পত্র না নিয়েই নকল ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা দেয়ার মধ্য দিয়েই কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছেন গাজীপুর জেলার শ্রীপুর চৌরাস্তাস্থ ‘নিউ এশিয়া ক্লিনিক এন্ড প্যাথলজি’ নামক একটি বেসরকারী ক্লিনিক। কোন ব্যক্তি লাইসেন্স ছাড়া প্রাইভেট ক্লিনিক স্থাপন করতে পারবে না। বিএমডিসি’র নিবন্ধন ব্যতীত কোন মেডিকেল চিকিৎসক বা ডেন্টাল চিকিৎসক এলোপ্যাথি চিকিৎসা করিতে, অথবা নিজেকে মেডিকেল চিকিৎসক বা, ক্ষেত্রমত, ডেন্টাল চিকিৎসক বলিয়া পরিচয় প্রদান করিতে পারিবেন না; এই বিধান লংঘন করিলে উক্ত লংঘন হইবে একটি অপরাধ, এবং তজ্জন্য তিনি ৩ (তিন) বৎসর কারাদন্ড অথবা ১ (এক) লক্ষ টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডনীয় হইবেন। আইনে এমন বিধান থাকলেও কোন তোয়াক্কা না করে নিউ এশিয়া ক্লিনিকের পরিচালক ফজলুল হক নিজের শান্তি ও অনৈতিক লাভের লক্ষ্যে কথিত ডাক্তার মো: রুহুল আমিনকে দিয়ে স্থানীয় সাধারণ মানুষদের চিকিৎসা দিচ্ছেন, চালাচ্ছেন টেষ্ট বাণিজ্য। ফজলুল হক জানান, ‘রুহুল আমিন আমাদের ডিউটি ডাক্তার সে খুব ভালো চিকিৎসা দেয়, আর আমাদের হাসপাতালের সব কগজ পত্র আছে।’ একই সাথে তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের কোন ক্ষতি কইরেন না।’ কথিত ডাক্তার মো: রুহুল আমিন বলেন, ‘আমি এমবিবিএস করিনি তবে সি আল্ট্রার উপরে কোর্স করা আছে, আমি চিকিৎসা দিতে পারি আইনগত কোন সমস্যা নেই।’ শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রণয় ভূষণ দাস বলেন, ‘এমবিবিএস ডিগ্রি ছাড়া নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দেয়া ও এলোপ্যাথিক চিকিৎসা দেয়ার কারো সুযোগ নেই। আমরা খোঁজ খবর নিয়ে নিউ এশিয়া ক্লিনিক ও নকল ডাক্তারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব।’ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তরিকুল ইসলাম জানান, ‘আমরা দ্রুত নিউ এশিয়া ক্লিনিক ও নকল ডাক্তারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে উদ্যোগ নিতে বলব।’ বিষয়টি গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. খায়রুজ্জামানকে জানালে তিনি বলেন, ‘ম্যাসেজে ক্লিনিক ও নকল ডাক্তারের নামটি পাঠান আমি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category