• বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
‘মুজিবনগর দিবস’ বাঙালির পরাধীনতার শৃঙ্খলমুক্তির ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন: প্রধানমন্ত্রী শ্রম আইনের মামলায় ড. ইউনূসের জামিনের মেয়াদ বাড়ল জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় গুরুত্ব থাকবে জনস্বাস্থ্যেও: পরিবেশ মন্ত্রী অনিবন্ধিত অনলাইনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনায় বিকল্পভাবে পণ্য আমদানির চেষ্টা করছি: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী স্বাস্থ্যসেবায় অভূতপূর্ব অর্জন বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে: রাষ্ট্রপতি শান্তি আলোচনায় কেএনএফকে বিশ্বাস করেছিলাম, তারা ষড়যন্ত্র করেছে: সেনাপ্রধান বন কর্মকর্তার খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতে কাজ করছে মন্ত্রণালয়: পরিবেশমন্ত্রী পুরান ঢাকার রাসায়নিক গুদাম: ১৪ বছর ধরে সরানোর অপেক্ষা ভাসানটেক বস্তিতে ফায়ার হাইড্রেন্ট স্থাপন করা হবে : মেয়র আতিক

সড়কে ইন্টেলিজেন্ট ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম গড়ে তোলার উদ্যোগ

Reporter Name / ১৪১ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সড়কে ইন্টেলিজেন্ট ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম গড়ে তোলার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। তাতে নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য, টেকসই ও উন্নত সড়ক পরিবহণ অবকাঠামো এবং পরিচালন ব্যবস্থা নিশ্চিত হবে। সেজন্য ১২২ কোটি ৩ লাখ টাকার ইন্টেলিজেন্ট ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম (আইটিএস) শীর্ষক প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে। তার মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৩৮ কোটি ৮৩ লাখ টাকা এবং কোরিয়া ঋণ সহায়তা দেবে ৮৩ কোটি ২০ লাখ টাকা আসবে। প্রকল্পের আওতায় সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরে ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট সেন্টার স্থাপন করা হবে। আর সেখান থেকে ওই ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করা হবে। পরীক্ষামূলকভাবে দেশের সবচেয়ে দ্রুতগতির সড়ক ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে ওই পদ্ধতি প্রথম চালু করা হবে। কারণ পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর ওই সড়কে যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে দুর্ঘটনাও বেড়েছে। পর্যায়ক্রমে সারা দেশের প্রধান সড়কগুলো ওই পদ্ধতির আওতায় আনা হবে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, দেশের সড়ক নেটওয়ার্কের সঙ্গে সঙ্গে সড়কে যানবাহনের পরিমাণ এবং গতি উল্লেখযোগ্য মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে বাড়ছে সড়ক দুর্ঘটনাও। এমন পরিস্থিতিতে ক্রমবর্ধমান যানবাহনকে নজরদারির আওতায় নিয়ে আসা জরুরি হয়ে পড়েছে। পাশাপাশি সমন্বিত ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার জন্যও ইন্টেলিজেন্ট ট্রান্সপোর্ট সিস্টেমস (আইটিএস) গুরুত্বপূর্ণ। ওই প্রযুক্তির মাধ্যমে সড়ক নেটওয়ার্ককে একটি একক নজরদারি ব্যবস্থার আওতায় নিয়ে আসা হবে। ফলে সময় ও জ¦ালানি সাশ্রয়ী, যানজট ও দূষণমুক্ত এবং সর্বোপরি দুর্ঘটনামুক্ত একটি দক্ষ সড়ক নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা গড়ে তোলা যাবে। পরীক্ষামূলক (পাইলট) প্রকল্প হিসাবে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের (এন-৮) ৪০ কিলোমিটার সড়কের আইটিএস বাস্তবায়ন করার জন্য সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগ ওই কারিগরি সহায়তা (টিএপিপি) প্রকল্পটির প্রস্তাব করেছে।
সূত্র জানায়, আইটিএস প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে আইটিএস সিস্টেমের মাধ্যমে দেশের সড়ক নেটওয়ার্কের নিরাপত্তা বাড়বে। প্রতিষ্ঠিত হবে দুর্ঘটনামুক্ত একটি দক্ষ সড়ক নেটওয়ার্ক। পাশাপাশি দেশে বিদ্যমান আইন, বিধিমালাগুলো বিশ্লেষণের মাধ্যমে একটি সড়ক মাস্টার প্ল্যানও তৈরি করা হবে।
এদিকে এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী একেএম মনির হোসেন পাঠান জানান, আইটিএস একটি আধুনিক ও নতুন সিস্টেম। এর মাধ্যমে যানবাহনগুলোকে রিয়েল টাইম মনিটরিং করা হবে। ফলে কোথায় যানজট আছে বা কোনো সমস্যা আছে কিনা সেসব নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হবে। ফলে দুর্ঘটনা অনেক কমে আসবে। পাইলট ভিত্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। সফলতা এলে পর্যায়ক্রমে পুরো দেশের সব সড়ক এই সিস্টেমের আওতায় আনা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category