• বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০২:২৭ অপরাহ্ন
  • ই-পেপার
সর্বশেষ
ঈদযাত্রায় বাড়তি ভাড়া আদায় করলে ব্যবস্থা বেনজীরের অঢেল সম্পদে হতবাক হাইকোর্ট তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুয়েক সময় আমাদের ট্রলার-টহল বোটে মিয়ানমারের গুলি লেগেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম-নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান রাষ্ট্রপতির সহকর্মীকে হত্যাকারী কনস্টেবল মানসিক ভারসাম্যহীন দাবি পরিবারের বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী চেকিংয়ের জন্য গাড়ি থামানো চাঁদাবাজির অংশ নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সারা দেশে ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা কতজন জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট বান্দরবান থেকে কেএনএফের ৩১ জনকে পাঠানো হলো চট্টগ্রাম কারাগারে

বান্দরবান সেনা রিজিয়ন কর্তৃক প্রেসক্লাব এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক সম্মেলন ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

মোঃ জুয়েল হোসাইন : / ১১১ Time View
Update : সোমবার, ৮ আগস্ট, ২০২২

অদ্য ০৮ আগস্ট ২০২২ তারিখ সকাল ১১ঘটিকায় বান্দরবান সেনা রিজিয়ন কর্তৃক বান্দরবান পার্বত্য জেলার সকল উপজেলার প্রেসক্লাব এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণকে নিয়ে বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে অডিটোরিয়ামে সাংবাদিক সম্মেলন ও মতবিবিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সম্মেলনের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ জিয়াউল হক, এনডিসি, এফডব্লিউসি, পিএসসি, কমান্ডার ৬৯ পদাতিক ব্রিগেড ও রিজিয়ন কমান্ডার বান্দরবান রিজিয়ন। তিনি শুরুতেই সম্মিলিত ফটো সেশন এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন। এছাড়াও, উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেক্টর কমান্ডার, বান্দরবান, বিজিবি সেক্টর সদর দপ্তর, সকল জোন কমান্ডারগণ, রিজিয়নের অন্যান্য অফিসারবৃন্দ, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতিগণ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ। উক্ত অনুষ্ঠানে ০৭টি উপজেলা হতে প্রেসক্লাব এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সর্বমোট ৭০ জন সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। রিজিয়ন কমান্ডার বান্দরবান জেলা সহ সকল উপজেলার প্রেসক্লাবগুলোকে অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য সাহায্য সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান। তিনি বস্তুনিষ্ঠ তথ্য প্রচারে অবিচল সাংবাদিকদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তথ্য নির্ভর সংবাদের মাধ্যমে পার্বত্য এলাকায় উন্নয়নের স্রোতধারা সারা বিশ্বকে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন। তিনি আরও বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বাংলাদেশের অন্যান্য এলাকার মত নয়। পাহাড়ে ঘেরা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এই অঞ্চলে রয়েছে ১২টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস। সাংবাদিকরা হলো সেই সকল ব্যক্তি, যারা পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়ন, আইনশৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং অত্র অঞ্চলের সার্বিক উত্তরণের চাবিকাঠি। এছাড়াও, তিনি শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, সন্ত্রাসীগোষ্ঠী এর কার্যক্রম, পার্বত্য অঞ্চলে দাতা সংস্থার কার্যক্রম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার, ধর্ম, বর্ণ ও গোত্র নির্বিশেষে কার্যক্রম পরিচালনা করা, সকল জাতি গোষ্ঠীর নিজস্ব রীতিনীতি সংরক্ষণ, দুর্গম এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকান্ড সম্পর্কিত তথ্যাদি, গুজব নির্মূল এবং পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাসবাদ নিরসনে সাংবাদিকগণের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি কর্তৃক উপস্থিত পার্বত্যাঞ্চলের প্রান্তিক সাংবাদিকগণকে পার্বত্যাঞ্চলের ঝুঁকিপূর্ণ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের পাশাপাশি বিশেষ অবদানের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category